Date : 2023-09-28

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সাম্মানিক ডিলিট সম্মান সেন্ট জেভিয়ার্সের

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক ঃ কলকাতার পর এবার সেন্ট জেভিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সাম্মানিক ডিলিট দিল। উচ্চশিক্ষায় বিশেষ অবদানের জন্য তাঁকে ডিলিট সম্মান দেওয়া হল। এই ডিলিট সম্মান মুখ্যমন্ত্রী সাধারণ মানুষকে উৎসর্গ করেন।

২০১৭ সাল থেকে পথ চলা শুরু সেন্ট জেভিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয়ের। এবার ছিল জেভিয়ার্সের চতুর্থ সমাবর্তন অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানে সাম্মানিক ডিলিট দেওয়া হল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। উচ্চশিক্ষায় তাঁর বিশেষ অবদানের জন্য দেওয়া হয় এই সাম্মানিক ডি-লিট। এদিনের অনুষ্ঠানে একই মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দও। মুখ্যমন্ত্রীকে সাম্মানিক ডি লিট তুলে দেন রাজ্যপাল। সঙ্গে ছিলেন জেভিয়ার্সের উপাচার্য ফাদার ফেলিক্স রাজ। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি কৃতজ্ঞ, এই সম্মান আমার অনুপ্রেরণা।’  এই ডিলিট সম্মান মুখ্যমন্ত্রী উৎসর্গ করেন সাধারণ মানুষকে। এই সাধারণ মানুষের হয়েই তিনি থাকতে চান বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূয়সী প্রশংসা করেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর এই ডিলিট সম্মান প্রাপ্তি তিনি অর্জন করেছেন।” এর সঙ্গে রাজ্যপাল জানান, যে সব রাজনীতিবিদ রাজনীতির সঙ্গে সাহিত্য কীর্তিতেও অনন্য স্বাক্ষর রেখেছেন, তাঁর মধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও রয়েছেন।

নিউটাউনে জেভিয়ার্সের এই বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে ওঠার পিছনে অবদান রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এই ক্যাম্পাসেই তাঁর হাতে এই ডিলিট সম্মান তুলে দেওয়া হয়। এদিন শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীকেই একমাত্র এই সম্মান প্রদান করা হয়। উচ্চ শিক্ষার প্রসারে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় একাধিক সরকারি, বেসরকারি একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ তৈরি হয়েছে। এদিনের ভাষনে সে কথাও তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী।