Date : 2024-06-21

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের ওপর বুলডোজার চালিয়ে দিল লিভারপুল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের ওপর বুলডোজার চালিয়ে দিল লিভারপুল। 7-0 গোলে বনফিল্ডের মাঠে ম্যাঞ্চেস্টারকে হারাল য়ুরগেন ক্লপের দল। গত 90 বছরের ক্লাবের ইতিহাসে এটাই ম্যান ইউর সব থেকে বড় হার। লিভারপুল যে এভাবে নাস্তানাবুদ করবে তাদের ডিফেন্সকে সেটা বোধহয় দুঃস্বপ্নেও ভাবতে পারেননি কাসেমেইরো-রাফায়েল ভারানেরা। প্রিমিয়ার লিগে এই ম্যাচের আগের লিভারপুল প্রায় 10 পয়েন্ট পিছিয়ে ছিল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের থেকে। ম্যাচ শুরু হতেও অবশ্য বোঝা যায়নি লিভারপুল আক্রমনের সামনে এভাবে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়বে এরিক টেন হাগের সাধের ডিফেন্স। ম্যাচের 43 মিনিটে প্রথম গোল করেন কডি গাকপো। এই গোলের পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আক্রমনে যাওয়ার চেষ্টা করে টেন হাগের দল। তাতেই ঘটে বিপত্তি। 47 মিনিটে লিভারপুলকে দ্বিতীয় গোল এনে দেন ডারউইন নুনেজ। এর তিন মিনিট পর ফের গোল কডি গাকপোর। 3-0 গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল। 66 মিনিটে গোলের পার্টিতে যোগদান করেন মিশরিয় তারকা মহম্মদ সালাহ। 75 মিনিটে ফের গোল। এবার নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ডারউইন নুনেজ। কডি গাকপো এবং নুনেজের জোড়া গোল হওয়ার পর, মহম্মদ সালাহও চেয়েছিলেন নিজের ট্র্যাক রেকর্ড বজায় রাখতে। ম্যাচের 83 মিনিটে অনবদ্য গোলে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে ব্যবধান 6-0 করেন মিশরিয় সুপারস্টার মহম্মদ সালাহ। হাফ ডজন গোল হজমের পর আর অবশ্য খেলার মানসিকতাও ছিল না ভারানে, ব্রুনোদের মধ্যে। শরিরি ভাষাতেই বোঝা যাচ্ছিল, কতক্ষণে ম্যাচ শেষ হবে সেই অপেক্ষাতেই ছিলেন তাঁরা। ম্যাচের শেষ লগ্নে ম্যান ইউর কফিনে শেষ পেরেকে পুঁতে দেন রবার্তো ফিরমিনহো। 90 মিনিটে শেষে 7-0 গোলে জয়ের হাসি নিয়ে যখন মাঠ ছাড়ছেন লিভারপুল সমর্থকরা, তখন ব্রুনো, কাসেমেইরোদের হতাশ মুখগুলোই বলে দিচ্ছিল ক্লাবের ইতিহাসে অন্যতম খারাপ দিনে ব্যর্থতার অন্যতম কান্ডারি হিসেবে রয়ে গেলেন তারাও।