Date : 2024-04-13

“ মিসেস চ্যাটার্জী ভার্সেস নরওয়ে” ছবি ঘিরে অসুন্তুষ্ট নওয়ের রাষ্ট্রদূত। ট্যুইটের উত্তরে বাস্তবের মিসেস চ্যাটার্জী দিলেন মোক্ষম জবাব।

রাকেশ নস্কর, সাংবাদিক : রানি মুখোপাধ্যায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ গোটা বলিউড। ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’ ছবি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই অভিনেত্রীকে স্বাধুবাদ জানিয়েছেন বলিউডের একাংশ। বলিউডের বাদশাহ শাহরুখ খানও রানি মুখোপাধ্যায়কে ছবির জন্য প্রশংসা করেছেন । তবে ছবি ঘিরে নতুন প্রশ্ন ডানা বেঁধেছে। ছবি নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন নরওয়ের রাষ্ট্রদূত হ্যান্স জেকব ফ্রাইডেনলুন্ড। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই বিষয় নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন তিনি । তবে বাস্তবের ‘মিসেস চ্যাটার্জী’ সাগরিকা পালটা জবাব দিয়েছেন নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে।

হ্যান্স টুইট করে লেখেন, “নরওয়ের প্রচলিত জীবন যাপনকে ভুলভাবে প্রদর্শন করা হয়েছে। অত্যন্ত দায়িত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান হল শিশুকল্যাণ সংস্থা। কোনও প্রলোভন বা আর্থিক সুবিধার জন্য তাঁরা দায়িত্ব পালন করে না।”
রাষ্ট্রদূতের বক্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করে এই টুইটের স্ক্রিনশট শেয়ার করেন সাগরিকা। তিনি জানিয়েছেন এত বছর গড়িয়ে গিয়েছে এখনও পর্যন্ত নরওয়ে সরকার কোনও ক্ষমা চায়নি তাঁর কাছে। সম্মানহানির শিকার হয়েছেন তিনি। ব্যক্তিগত জীবনেরও ক্ষতি হয়েছে। সন্তানদের মনের মধ্যে এখনও সেই ঘটনার আতঙ্ক মনে জমে রয়েছে বলে জানিয়েছেন সাগরিকা । সেই সময় কেবলমাত্র ভারত সরকারকে সাহায্যে পেয়েছিলেন। সাগরিকা নিজের বক্তব্য বলে ‘জয় হিন্দ’ শেষ করেন ।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে নরওয়ে সরকারের বিরুদ্ধে বিরাটির সাগরিকার নিজের সন্তানের হেফাজত নিয়ে আইনি লড়াই খবরে ছিল। মাতৃত্বের এই লড়াইকে বিষয় করে সাগরিকার লেখা বইয়ের উদ্ধৃত গল্প নিয়ে তৈরি ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’।