Date : 2024-06-21

বিয়ের নামে প্রতারণা, অবশেষে শ্রীঘরে প্রেমিক

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক – বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রেমের জালে ফাঁসিয়ে এক মহিলাকে প্রতারণার অভিযোগ রাজচন্দ্রপুরের বাসিন্দা সোমনাথ শর্মা ওরফে জয়ন্ত সরকার। বটতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন প্রতারিত মহিলা। তদন্তে নেমে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পেশায় আয়া কর্মী ৪৮ বছরের শিবানী সর্দার কাঁকুড়গাছি মোড়ে ফল কিনতে যান। সেখানেই রাস্তায় পরিচয় হয় সোমনাথ শর্মার সঙ্গে। পরিচয়ের পর ফোন নম্বর বিনিময় হয় একে- অপরের। চলে ফোনালাপ, এরই মধ্যে সোমনাথ শর্মা ওরফে জয়ন্ত সরকার বিয়ের প্রস্তাব দেয় শিবানী সর্দারকে। শিবানী দেবীর স্বামী মারা গেছেন অনেক দিন আগেই। সন্তানদেরও নিজেদের পরিবার রয়েছে। সহায়- সম্বলহীন শিবানী, সোমনাথের জালে পা দেয়। গাড়ি কেনার নাম করে শিবানীর থেকে ৪০ হাজার টাকা নেয় অভিযুক্ত। ১৯ ফেব্রুয়ারী সোমনাথ তাঁর মাসির বাড়ি থেকে গয়না নিয়ে কালীঘাটে গিয়ে বিয়ের করবে বলে জানায়। পরিকল্পনা মতো হেদুয়ায় মাসির বাড়ি বলে শিবানীকে নিয়ে যায়।

হবু স্ত্রীয়ের গায়ে গয়না থাকলে মাসি আর গয়না দেবে না বলে শিবানীর গায়ের গয়না খুলে দিতে বলে সোমনাথ। এরপরই সেখানে শিবানীকে অপেক্ষা করতে বলে চম্পট দেয় সোমনাথ। প্রতারিত হয়েছে বুঝতে পেরে বটতলা থানার দ্বারস্থ হন ওই মহিলা। তদন্তে নেমে রাজচন্দ্রপুরে নিজের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় সোমনাথ শর্মাকে। উদ্ধার করা হয় গয়না ও ১৫ হাজার টাকা। বাকি টাকা নিজের স্ত্রীয়ের জন্য বেলগাছিয়ার একটি সোনার দোকানে জমা দিয়েছে বলে জেরায় স্বীকার করে অভিযুক্ত। অতীতেও এই রকম প্রতারণা করেছে অভিযুক্ত বলে পুলিশ সুত্রে জানা গেছে। তবে কোথায় কিভাবে প্রতারণা চালিয়েছে অভিযুক্ত তা খতিয়ে দেখছে বটতলা থানার পুলিশ।