Date : 2024-03-01

শান্তিপূর্ণ ভাবেই সম্পন্ন হল উচ্চমাধ্যমিকের প্রথম দিনের প্রথম ভাষার পরীক্ষা।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : শান্তিপূর্ণ ভাবেই সম্পন্ন হল উচ্চমাধ্যমিকের প্রথম দিনের প্রথম ভাষার পরীক্ষা। মনের মত প্রশ্নপত্র হওয়ায় খুশি পরীক্ষার্থীরা। প্রথমদিনের পরীক্ষায় আরএফডি অর্থাৎ রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ডিটেক্টর নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে উপস্থিত হন উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য। শহর কলকাতার কয়েকটি পরীক্ষাকেন্দ্রে তিনি যান এবং পরীক্ষামূলকভাবে আরএফডি যন্ত্রটি ব্যবহার করেন।

যারা এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় বসছে করোনার গেরোয় তারা দিতে পারেনি জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা মাধ্যমিক। তাই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাকে ঘিরে যাতে কোনও সমস্যা না হয় তারজন্য নেওয়া হয়েছে নানাবিধ ব্যবস্থাপনা। পাশাপাশি কারচুপি এড়াতে মোবাইল ফোন নিয়ে বেশ কড়া উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় বসে প্রায় সাড়ে আট লক্ষ পরীক্ষার্থী। পরীক্ষার্থীসহ শিক্ষক শিক্ষিকা থেকে শিক্ষাকর্মী সকলেরই পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোন নিয়ে যাওয়া নিষিদ্ধ। কোনও পরীক্ষার্থী যাতে মোবাইল বা অন্যকোন ইলেক্ট্রনিক্স গ্যাজেট নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে না পারে, তার জন্য এবার প্রথমবার ব্যবহার করা হল আরএফডি যন্ত্রটি।

উচ্চমাধ্যমিকের মোট ভ্যেনুর সংখ্যা ২৩৪৯টি। যার মধ্যে ২০৬ টি ভ্যেনু স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আর অতি স্পর্শকাতর ভ্যেনুতে আরএফডি ব্যবহার করা হয়। বাকি স্পর্শকাতর কেন্দ্রে মেটাল হ্যান্ড ডিটেক্টর ব্যবহার করা হয়। প্রথমদিন কোনও ভ্যেনু থেকেই কোনও অভিযোগ আসেনি বলেই জানিয়েছেন সংসদ সভাপতি।