Date : 2024-07-23

উচ্চমাধ্যমিকের বাংলা পরীক্ষার প্রশ্নে ভুল। ছাপার ভুল বলে জানিয়েছে সংসদ।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : উচ্চমাধ্যমিকের প্রথম দিন প্রথম ভাষার প্রশ্নপত্র ঘিরে উঠল প্রশ্ন। ঝঞ্জাটহীন পরীক্ষায় বাংলার একটি প্রশ্নে যে ভুল সামনে আসে তা নিয়ে ছড়াই বিভ্রান্তি। ১০.৪ বিভাগের প্রশ্নে ‘প্রদত্ত সূত্র ও তথ্য অবলম্বনে’ নেতাজির ১২৫ তম জন্মজয়ন্তী নিয়ে প্রবন্ধ লিখতে দেওয়া হয়েছিল যার মোট নম্বর ১০। আর সেখান ছাপার ভুলে বিতর্ক দানা বাঁধে। তথ্য হিসেবে নেতাজির উচ্চশিক্ষার উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, নেতাজি আইএএস উত্তীর্ণ। আসলে ব্রিটিশ আমলে নেতাজি আইসিএস উত্তীর্ণ হয়েছিলেন। আর আইসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়াকে উচ্চশিক্ষা বলা যায় কি না, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

এনিয়ে সংসদের কাছে জানতে চাওয়া হলে সংসদের তরফে জানানো হয়েছে, এই ভুল অনিচ্ছাকৃত। এটা ‘প্রিন্টিং মিস্টেক’ বা ছাপার ভুল বলে বক্তব্য সংসদের। যদিও এটি কোনও আলাদা প্রশ্ন ছিল না। প্রবন্ধ লেখার জন্য যে তথ্য দেওয়া হয়েছিল তার মধ্যেই এই মিস্টেক ছিল। তাই প্রশ্ন উঠছে এই ভুলের জন্য পরীক্ষার্থীদের নম্বর দেওয়া হবে কি না? সংসদ সূত্রে খবর,পরীক্ষার্থীরা আইসিএসের জায়গায় আইএএস লিখলেও নম্বরের কোনও ফারাক হবে না। তবে পরীক্ষার্থীরা প্রবন্ধটি কেমন লিখছে, তার ওপর বিচার করেই নম্বর দেওয়া হবে।

এবার প্রায় সাড়ে আট লক্ষ পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছে। ছাত্রদের থেকে ছাত্রী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১লক্ষ ২৭হাজার বেশি।২৩টি জেলার মধ্যে ২৩টি জেলাতেই ছাত্রী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি।
মোট ২৩৪৯টি ভ্যেনুতে পরীক্ষ হচ্ছে। প্রথমদিনে প্রথমভাষার পরীক্ষায় প্রবন্ধ লেখায় প্রিন্টিং মিস্টেক ছাড়া আর তেমন কোনও অভিযোগ শোনা যায়নি। মোটের উপর পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলেই জানান সংসদ সভাপতি।