Date : 2024-05-26

বিরাট কোহলি ইনস্টাগ্রামে আন ফলো করেছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে

মাঠের ঝামেলা চলে এল মাঠের বাইরেও। বিরাট কোহলি ইনস্টাগ্রামে আন ফলো করেছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে। একইভাবে কয়েক দিনের মধ্যেই এবার বিরাট কোহলিকে আনফলো করলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মহারাজ। দিল্লি ক্যাপিটালস বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ম্যাচেই দেখা গেছিল, একে অপরকে এড়িয়ে গেছিলেন বিরাট এবং সৌরভ। এমনকি ম্যাচ শেষে করমর্ধনের সময়ও দুজনই দুজনকে এড়িয়ে যান। এছাড়াও সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দিকে বিরাটের তাকানো থেকেই বোঝাই যাচ্ছিল যে, দুজনের সম্পর্ক যে একদমই তলানিতে এসে পৌঁছেছে। 2021 সালে বিসিসিআইয়ের সভাপতি থাকাকালীনই বিরাটের সঙ্গে মনোমানিন্য শুরু হয় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। বাধ্য হয়েই একপ্রকার টি20 ক্রিকেটেরে অধিনায়কত্ব ছাড়তে হয় বিরাট কোহলিকে, যার জন্য তিনি কার্যত বিসিসিআইয়ের সভাপতিকেই দায়ি করেছিলেন। যা নিয়ে জলঘোলাও হয়েছিল বিস্তর। টি20 অধিনায়কত্ব ছাড়লেও বিরাট কোহলি নিজে একদিনের ফরম্যাট এবং টেস্ট ফর্ম্যাটে অধিনায়কত্ব করতে চেয়েছিলেন। যদিও বিরাটের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা ছাড়াই রোহিত শর্মাকে দঃ আফ্রিকা সিরিজের জন্য অধিনায়ক ঘোষণা করা হয়েছিল। বিসিসিআই যেহেতু ভিন্ন ফর্ম্যাটে ভিন্ন অধিনায়ক রাখতে চায় না সেই জন্যই রোহিতকে তিন ফরম্যাটে অধিনায়ক করা হয়। সৌরভ দাবি করেছিলেন, তিনি বিরাটকে অধিনায়কত্ব ছাড়তে নিষেধ করেছিলেন, যদিও তত্কালীন বোর্ড সভাপতির সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। এমনকি বোর্ডের প্রেস কনফারেন্সেই স্পষ্ট ভাবে বিরাট জানিয়েছিলেন যে তাকে কেউই অধিনায়ক থাকার জন্য অনুরোধ করেনি, যা গোটা বিশ্বের কাছেই বিরাট-সৌরভের তিক্ত সম্পর্কের পাশাপাশি ভারতীয় বোর্ডের অন্তর্কলহকেও সামনে এনে দিয়েছিল। এরপরই সভাপতির পদ থেকে সরতে হয় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে। 2022 সালে এশিয়া কাপে,,, নিজের খারাপ সময় কাটিয়ে ফের ছন্দে ফেরেন বিরাট কোহলি। তবে ছন্দে ফিরলেও তিনি যে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে তার তিক্ত সম্পর্ক ভুলে যাননি তা আইপিএলের ম্যাচেও প্রকাশ পেয়েছে। একইভাবে প্রিন্স অফ ক্যালকাটাও বিরাটের এই ব্যবহারকে আমল দিচ্ছেন না, তা বোঝাতেই হয়ত কোহলিকেও আনফলো করলেন। যদিও দেশের সর্বকালের দুই অন্যতম শ্রেষ্ঠ নায়কের এমন ঠান্ডা লড়াই যত দ্রুত সমাপতন হয়,ততই হয়ত ক্রিকেটের মঙ্গল।