Date : 2024-05-21

ধোপে টিকলো না শুভেন্দুর আপত্তি। তথ্য কমিশনার পদে শপথ নিলেন বিরেন্দ্র

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : রাজ্যের মুখ্য তথ্য কমিশনার পদে শপথ নিলেন প্রাক্তণ আইপিএস শ্রী বিরেন্দ্র। সোমবার রাজভবনে তাঁকে শপথ বাক্য পাঠ করালেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর কোনো আপত্তিই ধোপে টিকলো না।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি রাজ্য বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কক্ষে বৈঠক ডাকা হয়েছিলো রাজ্যের পরবর্তী মুখ্য তথ্য কমিশনার নিয়োগ নিয়ে। মুখ্যমন্ত্রীর পৌরহিত্যে হ‌ওয়া এই বৈঠকে আমন্ত্রিত ছিলেন বিধানসভায় পরিষদীয় মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ও বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু বৈঠকের দিন (১৫/০২/২৩) রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিবকে চিঠি লিখে শুভেন্দু অধিকারী এই বৈঠকের বিষয়ে নিজের আপত্তির কথা জানান। বিরোধী দলনেতার অভিযোগ ছিলো এই নিয়োগ (মুখ্য তথ্য কমিশনার) সংক্রান্ত কোনো বিজ্ঞাপন নিয়ম মতো কোনো জাতীয় সংবাদ পত্রে প্রকাশিত হয় নি।

শুভেন্দু অধিকারী আরও অভিযোগ করেন সরকার (রাজ্য) সবকিছু আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছে। এই বৈঠক শুধু আই ওয়াশ। তাই তিনি বৈঠকে যোগ দেন নি। তবে শুভেন্দু অধিকারী বৈঠকে যোগ না দিলেও ওইদিন নির্ধারিত সময়ে বৈঠক হয়। বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানিয়ে পরিষদীয় মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় জানান রাজ্য পুলিশের প্রাক্তণ মহানির্দেশক (DGP) শ্রী বিরেন্দ্র-কে পরবর্তী তথ্য কমিশনার হিসাবে নিয়োগ করা হবে। শুভেন্দু অধিকারী নিজের আপত্তির কথা জানিয়ে চিঠি দিয়েছিলেন রাজ্যে র স্বরাষ্ট্র সচিব বি পি গোপালিকাকে। চিঠি দিয়েছিলেন রাজ্যের রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস-কে। এদিকে গত ১৪ মার্চ নবান্ন থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হয় রাজ্যপাল শ্রী বিরেন্দ্র-র নামে সিলমোহর দিয়েছেন।

সেই মোতাবেক এদিন (১০/০৪/২৩,সোমবার) রাজভবনে শ্রী বিরেন্দ্র কে শপথ বাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব বি পি গোপালিকা। বিরোধী দলনেতার আপত্তিকে কোনো আমল‌ই দিলেন না রাজ্যপাল। এই প্রসঙ্গে বিরোধী দলনেতা টুইট করে জানিয়েছেন, “যাকে এই নিয়োগ দেওয়া হলো তাঁকে ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের সময় কাজ থেকে সরিয়ে দিয়েছিলো নির্বাচন কমিশন। এই নিয়োগ দূর্ভাগ্যজনক।”