Date : 2024-07-22

কুস্তিগিরদের নিগ্রহ কান্ডে এবার মুখ খুলতে শুরু করলেন দেশের ক্রীড়াবিদরা

কুস্তিগিরদের নিগ্রহ কান্ডে এবার মুখ খুলতে শুরু করলেন দেশের ক্রীড়াবিদরা। ব্রিজভূষণ সরণ সিংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়ে দেশের কুস্তিগিররা দীর্ঘ দিন যাবত জন্তর মন্তরের সামনে অবস্থান করছেন। এক নাবালিকা সহ- 6জনকে যৌন নিগ্রহ করার অভিযোগ রয়েছে জাতীয় কুস্তি সংস্থার সভাপতি তথা বিজেপি সাংসদ ব্রিজভূষণ সরণ সিংয়ের বিপক্ষে। কিন্তু আগামি বছর রয়েছে লোকসভা ভোটের। উত্তর প্রদেশের এই হেভিওয়েট সাংসদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে তার প্রভাব পড়তে পারে আগামি বছরের লোকসভা নির্বাচনে। বিরোধীদের দাবি, সেই কারণেই তার বিরুদ্ধে সরাসরি কোনও ব্যবস্থা নিতে পারছে না কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে থাকা দিল্লি পুলিশ। রবিবার সেন্ট্রাল ভিস্তা উদ্বোধনের দিন প্রতিবাদ মিছিল বার করেন সাক্ষী- বজরং পুনিয়ার মতো অলিম্পিকপদকজয়ী খেলোয়াড়রা। সেখানে জোর করে সাক্ষীদের আটক করে দিল্লি পুলিশ। কিছু ছবিতে দেখা যায়, ভিনেশ-সাক্ষীদের পুরুষ পুলিশও বাধা দিচ্ছে। যে পদ্ধতিতে তাদেরকে পুলিশ গাড়িতে তোলে তা দেখে লজ্জায় মাথা হেট হয়ে গেছে ক্রীড়ামহলের। একান্তই রাজনৈতিক প্রভাবে প্রভাবিত না হলে, সকলেই ঘটনায় বিরক্ত। সাক্ষী মালিক দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়া সম্মান খেলরত্ন প্রাপক। বজরং পুনিয়াও অর্জুন পুরস্কার, পদ্মশ্রীর পাশাপাশি পেয়েছেন খেলরত্ন সম্মান। ভিনেশ ফোগতের ঝুলিতেও রয়েছে খেলরত্ন, অর্জুন পুরস্কার এবং পদ্মশ্রী সম্মান। দেশের গর্বদের যে পদ্ধতিতে লাঞ্চিত করা হচ্ছে তাও যৌন হেনস্থার প্রতিবাদ করায়,,,,, তা দেখে অবাক সকলেই। কুস্তিবিদদের আটক করার ছবি দেখে সরব হয়েছেন সকলে।
অলিম্পিক্স পদকজয়ী জ্যাভলিন থ্রোয়ার নীরজ চোপ়ড়া লিখেছেন, এটা দেখে আমার অত্যন্ত কষ্ট হচ্ছে। এর থেকে ভালোভাবে বিষয়টি সামাল দেওয়া যেত। সুনীল ছেত্রী ট্যুইট করে লিখেছেন, কেন কুস্তিগিরদের মাটিতে এভাবে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া হবে। কেন এই পরিস্থিতি এল। এটা সঠিক পদ্ধতি নয়। আশা করি পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে। প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটার ইরফান পাঠান লিখেছেন, এটা দেখে আমার অত্যন্ত দুঃখ হচ্ছে। দ্রুত ঘটনার নিষ্পত্তি হোক। অলিম্পিকপদকজয়ী বক্সার বিজেন্দর সিং লিখেছেন, আজ আমার সঙ্গে হচ্ছে, কাল তোমার সঙ্গে হবে। সবার সঙ্গেই হবে। সাক্ষী মালিক নিজেই ট্যুইট করে তাদের টেনে হিচড়ে নিয়ে যাওয়ার ছবি পোস্ট করেন। 2008 অলিম্পিক্সের পদকজয়ী তথা দেশের প্রথম অলিম্পিক্স স্বর্ণপদকজয়ী ক্রিড়াবিদ অভিনব বিন্দ্রা ট্যুইট করে লেখেন, গতকাল রাতটা আমার কাছে বিনিদ্র ছিল। আমার সতীর্থ কুস্তিগিরদের ভয়ঙ্কর চিত্রটা দেখে আমার ভয় লাগছে। ক্রীড়াবিদদের জন্য এক স্বাধিন সংস্থা থাকা উচিত, যারা এই ধরনের ঘটনা ভবিষ্যতে ঘটলে পরিস্থিতি সামাল দেবে। আগেই রাজনৈতিক ব্যক্তিরা এই নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। এবার ক্রিড়াবিদরাও ঘটনার নিন্দা করে প্রতিবাদিদের পাশে দাড়ালেন। এখন দেখার কত দ্রুত এই বিতর্কে সমাপ্তি হয়।