Date : 2024-07-16

দাড়িভিট স্কুলে শিক্ষক নিয়োগে বিতর্কে গুলিতে দুই যুবকের মৃত্যু মামলার শুনানি শেষ, রায়দাণ স্থগিত।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : সোমবার মামলার শুনানিতে বিচারপতি রাজা শেখর মান্থার রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের রিপোর্ট ভুলে যান। এখনো ক্ষতিগ্রস্থদের ক্ষতি পূরণ দেওয়ার ব্যাবস্থা হয়েছে? চারদিন ধরে টানা মামলা চলছে। এখনো ক্ষতি পূরন নিয়ে আবার ইনস্ট্রাকশন নিতে হবে!?

রাজ্য মানবাধিকার কমিশনকে এদিন বিচারপতি বলেন গোটা ঘটনা ক্রমে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন নিজেকে নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে রেখেছে। দূর থেকে গোটা ঘটনাক্রম ডাকছে। তারা ডি এম, এস পি কে এতটাই ভরসা করে, তাদের থেকে রিপোর্ট চেয়েই দায়িত্ব সেরেছে। এটাই তাদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠার জন্য যথেষ্ট।

২০২০ সালে না হয় কমিশনের সদস্য ছিল না। কিন্তু ২০১৮ থেকে দু বছর কি করেছে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন। সেই তুলনায় জাতীয় কমিশন সেখানে লোক পাঠিয়ে পরে থেকে একটা রিপোর্ট তৈরি করেছে। সেই মাটিতে দাড়িয়ে। তাদের সেই রিপোর্ট নিয়ে যতই বিতর্ক হোক। তবু তারা সেটা করেছে। কিন্তু আপনারা কি করেছেন?

রাজ্যের আইনজীবীর উদ্দেশ্যে প্রশ্ন কোথায় প্রমাণ আছে, আইও অভিযোগ কারীদের কাছে গেছিলেন ?। কিন্তু তারা তদন্ত কারীদের সহযোগিতা করেননি। কোনো নথিতে সেটার প্রমাণ নেই। গ্রামের লোকের অসহযোগিতা আর যে পরিবার গুলি ক্ষতিগ্রস্ত তাদের অসহযোগিতা দুটো এক নয়।