Date : 2024-06-24

বেথুন কলেজিয়েট স্কুলকে বঙ্গরত্ন পুরস্কার।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক ঃ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে বেথুন কলেজিয়েট স্কুলকে বঙ্গরত্ন পুরস্কার দেওয়া হল। স্কুলের ১৭৫ তম প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে বুধবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে বেথুন স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার হাতে সেই পুরস্কার তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নারী শিক্ষার অন্যতম পীঠস্থান বেথুন কলেজিয়েট স্কুল। ১৮৪৯ সালের ৭মে জন এলিয়ট ড্রিঙ্কওয়াটার বেথুন সাহেবের প্রতিষ্ঠিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি শিমুলিয়াস্থ বৈঠকখানা বাটিতে মাত্র ২১জন ছাত্রী নিয়ে পথ চলা শুরু। প্রথমে নাম ছিল হিন্দু ফিমেল স্কুল। পরে নামকরণ করা হয় বেথুন কলেজিয়েট স্কুল। ১৭৫বছরের পুরনো এই স্কুলে পরতে পরতে রয়েছে ঐতিহ্যের ছোঁয়া। বুধবার স্কুলের ১৭৫ তম প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। বছরভর চলবে প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠান। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে সেই অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। মুখ্যমন্ত্রী তাঁর ভাষণে নারী শিক্ষায় বেথুন স্কুলের ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন ৷ 

১৭৫ বছরের পুরোনো এই স্কুলকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে বঙ্গরত্ন পুরস্কার দেওয়া হয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় এই সম্মান স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা শবরী ভট্টাচার্যের হাতে তুলে দেন ৷

পুরস্কার বাবদ ২লক্ষ টাকা এবং শিক্ষা দফতরের তরফ থেকে ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ঘোষনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। পুরস্কার পেয়ে খুশি স্কুলের পড়ুয়া থেকে কর্তৃপক্ষ সকলেই। এদিনের অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়। যাতে অংশগ্রহণ করে স্কুলের পড়ুয়ারা।