Date : 2024-07-21

কামদুনি কামদুনি গণধর্ষণের অভিযুক্তদের মুক্তির জের তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্যকে মোক্ষম জবাব দিলেন আইনজীবী ফিরোজী এডুলজি।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : প্রখ্যাত আইনজীবী রাম জেঠ মালানির উদ্ধৃতি “একজন আইনজীবী যিনি একজন ব্যক্তিকে এই কারণে রক্ষা করতে অস্বীকার করেননা যে লোকেরা তাকে দোষী বলে বিশ্বাস করে সে নিজেই পেশাদারিত্ব সঙ্গে প্রতারণার জন্য দোষী।”
সংবিধানের অনুচ্ছেদ 22(1) এর অধীনে একজন অভিযুক্তের মৌলিক অধিকার “তাঁর পছন্দের একজন আইনজীবীর দ্বারা রক্ষা করা”।বললেন, ‘আমি একজন আইনজীবী এবং আমার রাজনৈতিক মত আমার মক্কেলদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়’।

আইনজীবী ফিরোজ এডুলজি বলেন, ‘যখন জয়প্রকাশ মজুমদার হেফাজতে ছিলেন, আমাকে মামলা লড়়তে বলেছিলেন। কংগ্রেস নেতা কৌস্তুভ বাগচিকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তিনি আমাকে মামলা লড়তে বলেছিলেন। রাষ্ট্রপতি বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্যে অভিযোগে তৃণমূল বিধায়ক অখিল গিরি বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা হয়েছিল, তিনি আমার কাছে এসেছিলেন’।

মক্কেলরা আমার কাছে আসে, কারণ তাঁরা মনে করে আমি তাদের স্বস্তি দিতে পারবো। আমার পারিশ্রমিক কত? সেটা কেউ ভাবে না’। সঙ্গে অনুরোধ, ‘পরেবার দয়া করে আমরা পদবী বানানটি ঠিক করে লিখবেন’।

আইনজীবী ফিরোজ এডুলজি ২০১৫সালে রাতের ঘুম উড়িয়ে দিয়েছিলেন বীরভূমের প্রাক্তন জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের। পড়ুইয়ে সাগর ঘোষ হত্যা মামলায় বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের এজলাসে মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে আদালতে মামলা করে ছিলেন।