Date : 2024-02-24

ক্যাঙ্গারু কোর্ট বসিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি! হাই কোর্টের রিপোর্ট তলব।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : ক্যাঙ্গারু কোর্ট বসানোর অভিযোগ বর্ধমান থানার আই সি র বিরুদ্ধে। ঘটনার দিনের থানার সিসিটিভি ফুটেজ সংরক্ষণের নির্দেশ। যদিও ওইদিনের ছবি কোনোভাবে মুছে গিয়েছে বলে যুক্তি রাজ্যের। আদালতের নির্দেশ।
৭ নভেম্বরের সিসিটিভি ফুটেজ সংরক্ষণ করতে হবে। যদি সেটা না থাকে তাহলে সেই ছবি উদ্ধারের চেষ্টা করতে হবে। ৫ জানুয়ারি পরবর্তী শুনানি।
মামলকারী বিশ্বনাথ গুপ্তর পক্ষের আইনজীবী উদয় শঙ্কর চট্টোপাধ্যায় আদালতে অভিযোগ ব্যবসায়ীকে ফোন করে বর্ধমান থানার আই সি। এবং ফোন করে থানায় তাকে ডেকে পাঠায় গত ৬ নভেম্বর ২০২৩। আইসি ডাকে সাড়া না দেওযায় পরের দিন পুলিশ দিয়ে ডেকে নিয়ে গিয়ে দুপুর থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত সেখানে ক্যাঙ্গারু কোর্ট চালানো হয় থানার মধ্যেই বলে অভিযোগ। কিছু লোকের থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ করা হয়। সেই টাকা ৭ ডিসেম্বরের মধ্যে না মেটালে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানোর হুমকির অভিযোগ ওসি সুখময় চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে। অতীতেও ওই ওসি র বিরুদ্ধে এমনভাবে ক্যাঙ্গারু কোর্ট বসানোর অভিযোগ আছে, দাবি মামকাকারির।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত, কেউ কারোর থেকে তোলা বাজি করলে পুলিশের কাজ কি? পুলিশ টাকা উদ্ধারের চেষ্টা করবে। পুলিশের যেটা কাজ সেটা করুক।