Date : 2024-02-24

পঞ্চায়েত নির্বাচন সংক্রান্ত মামলায় ফের ডাক পড়তে পারে রাজিব সিনহার: হাইকোর্ট।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনে আগে ও পরে কলকাতা হাইকোর্টে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছিল। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং লোকসভার বিরোধী দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীর করা মামলায় সাধারণ ভোটারদের নিরাপত্তার পাশাপাশি নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র দাখিল থেকে প্রত্যাহার সময় নির্বাচনে যাঁরা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন সকলের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে একাধিক নির্দেশ দিয়েছিলেন।

কিন্তু মনোনয়ন পত্র দাখিল করা থেকে নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে রাজ্যের বিরোধী দলের কর্মী সমর্থকদের মারধর থেকে শুরু করে বেশ কিছু মানুষের প্রাণঘাতী মত ঘটনা ঘটেছে।

রাজ্য নির্বাচন কমিশনার রাজীব সিনহা আদালতের নির্দেশ সঠিক মূল্যায়ন না করে কোন কঠোর আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করে নিশুধু নয় একাধিক কারচুপি অভিযোগ পাওয়ার পরেও কোন ব্যবস্থা নেয় নি বলে অভিযোগ।

পঞ্চায়েত নির্বাচনে গণনাকে কেন্দ্র করে একাধিক জেলায় পরিস্থতিতে খারাপ হয়ে যায়। বাধ্য হয়ে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ কেন্দ্রীয় বাহিনী আর বেশ কিছুদিন কয়েকটি জেলায় মোতায়ন রাখেন।

আদালতের একের পর এক নির্দেশ অমান্য করায় রাজ্য নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননা মামলা দায়ের করা হয়েছিল। সেই মামলায় ডিভিশন বেঞ্চ কোন সদুত্তর পাননি। তাই তার বিরুদ্ধে রুল জারি করে। এবং কলকাতা হাই কোর্টের সশরীরে হাজির নির্দেশ দিয়েছিলেন ডিভিশন বেঞ্চ।ক্ক

শুক্রবার আদালত অবমাননা মামলায় প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম এবং বিচারপতি উদয় কুমারের ডিভিশন বেঞ্চে হাজিরা দেন।

রাজীব সিনহা আদালতে হাজিরা দিলেন

পোর্টাল: আদালত অবমাননার রুলের উত্তর দিতে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় দিল আদালত।

প্রধান বিচারপতি জানান, আদালত প্রয়োজন মনে করলে আবার ডেকে পাঠাবে।

৮ জানুয়ারি পরবর্তী শুনানি