Date : 2024-02-24

খুদে লেখকের ভ্রমণকাহিনি।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : ছোটো থেকে বড় প্রত্যেকের কাছে যেমন প্রিয় বইমেলা। তমনই কিংবদন্তি থেকে নতুন প্রজন্ম সব লেখকই এই বইমেলায় মন কাড়ে বইপ্রেমীদের। অন্য বছরের মত এবারও খুদে লেখকদের বই মন কাড়ছে বইমেলা প্রাঙ্গনে।

শিশুদের বইমুখী করতে চলতি বছর শিশুদিবস পালন করা হয় কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায়। ওইদিন খুদে পাঠকদের হাতে তুলে দেওয়া হয় বই। একদিকে শিশুদের বইয়ের প্রতি আগ্রহ বাড়াতে বইমেলা অন্যতম মাধ্যম তেমনই খুদে লেখকদের লেখার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে বইমেলা বড় একটি প্লাটফর্ম। বইমেলায় ঘুরতে ঘুরতে হঠাই দেখা মিলল এক খুদে লেখকের সঙ্গে। সমৃদ্ধ চ্যাটার্জি। ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র । ছোট থেকে লেখার প্রতি আগ্রহ তার। মনের কথা ডাইরির পাতায় লিখে রাখতে ভালেবাসে সে। শুধু মনের কথা নয়, যা দেখে তাই সে লিখে রাখে। বছর দুই আগে সমৃদ্ধ বাবা-মায়ের সাথে জাপান যায়। সেখানে যাওয়ার পর থেকে তার শিশুমন জাপানকে তার মত করে দেখে । জাপানে কাটানো ছটি মাসের প্রতিটি মূহুর্ত সে ডায়রির পাতায় বন্দি করে। আর সেই ভ্রমণ কাহিনি ১৮টি অধ্যায়ে বই আকারে প্রকাশ পেয়েছে। ভ্রমণকাহিনীর নাম দেওয়া হয়েছে ‘অ্যান ইন্ডিয়ান কিডস্ ইন জাপান’।

ছেলে লিখতে ভালোবাসে। তাই তাকে লেখার জন্য উৎসাহ দেন বাবা মা। কিন্তু ছেলের লেখা ভ্রমণ কাহিনী পড়ে এবং সেটা পড়ার মধ্য দিয়ে জাপান সফরে তারা গর্বিত, এমনই জানান সমৃদ্ধ-র বাবা সৌমেন চ্যাটার্জি।

সমৃদ্ধ-র বাবা মার্শাল আর্টের সাথে যুক্ত আর তার মা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা। সমৃদ্ধ বড় হয়ে কোন পেশার সাথে যুক্ত হবে তা এখনও ঠিক না করলেও আগামীদিনে লেখার কাজ সে পুরোদমে চালাবে বলেই মত তার।