Date : 2024-02-25

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করল উচ্চশিক্ষা দফতর।

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক : যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করল উচ্চশিক্ষা দফতর। বুদ্ধদেব সাউ- ই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তবর্তী উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব সামলাবেন বলেই জানিয়েছে উচ্চশিক্ষা দফতর। গত ২৩ ডিসেম্বর যাদবপুরের সমাবর্তন অনুষ্ঠানের একদিন আগে রাজ্যপাল তথা সিভি আনন্দ বোস যাদবপুরের অন্তর্বর্তী উপাচার্য বুদ্ধদেব সাউকে অপসরণের নির্দেশ দিয়েছিলেন।রাজ্যপালের নির্দেশের পরেই উচ্চশিক্ষা দফতরের তরফ থেকে একটি চিঠি পাঠানো হয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে। যেখানে বুদ্ধদেব সাউকে উপাচার্যের ক্ষমতা ও দায়িত্ব পালন করে যেতে বলা হয়েছিল। দুটি চিঠি কোর্ট বৈঠকে পেশ করা হয়। কোর্ট বৈঠকের পর সমাবর্তন অনুষ্ঠান মঞ্চে উপাচার্যের ভূমিকায় দেখা গেছিল বুদ্ধদেব সাউ কে।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানের পরে বুদ্ধদেব সাউ আদৌও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্বভার পালন করতে পারেন কি না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও আর্থিক অনুমোদনকারী কে, তা নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন ছিল। এই নিয়ে উচ্চশিক্ষা দপ্তরের কাছে স্পষ্টীকরণ চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন রেজিস্ট্রার স্নেহমঞ্জু বসু। তার প্রেক্ষিতেই শুক্রবার নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেছে উচ্চশিক্ষা দপ্তর। তাতে বলা হয়েছে, গত ২৩ ডিসেম্বরের চিঠিতেই দপ্তর নিজের অবস্থান জানিয়ে দিয়েছিল। 

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার সিভি আনন্দ বোসের নির্দেশে রাজভবন থেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে।তাতে বলা হয়েছে, বুদ্ধদেব সাউকে আর বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজে হস্তক্ষেপ করতে দেওয়া যাবে না। এবং তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনে যাতে কোনও রকম কর্তৃত্ব না ফলান, সেই বিষয়টি সুনিশ্চিত করতে বলা হয়েছে রেজিস্ট্রার ও সহ-উপাচার্যকে। রাজভবনের এই চিঠির পরে শুক্রবার নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে উচ্চশিক্ষা দফতর। উচ্চশিক্ষা দফতর বুদ্ধদেব সাউ কেই অন্তবর্তী উপাচার্য হিসেবে দায়িত্বভার সামলানোর কথা জানিয়েছে।