Date : 2024-02-25

আন্তর্জাতিক টেস্টে ক্রিকেটে দ্বিশতরান করলেন যশস্বী জয়সওয়াল

তৃতীয় কনিষ্ঠতম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক টেস্টে ক্রিকেটে দ্বিশতরান করলেন যশস্বী জয়সওয়াল। ভারতীয়দের মধ্যে তিনি তৃতীয় ক্রিকেটার যিনি এত অল্প বয়সে দ্বিশতরান করলেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে দুরন্ত ব্যাটিং করতে দেখা যায় উত্তর প্রদেশের এই বাঁহাতি ব্যাটারকে। যখন বাকি সব ক্রিকেটারই পরপর উইকেট হারাচ্ছেন তখন উইকেটে রাজকীয় ঢংয়ে ব্যাটিং করতে দেখা যায় যশস্বীকে। আগেই বোঝা গেছিল দ্বিতীয় দিনে বাকি ব্যাটাররা অন্তত তাকে যোগ্য সংগত দিয়ে উইকেটে টিকে থাকলেও ভারতকে বড় রানে নিয়ে যাবেন যশস্বী জয়সওয়াল। দ্বিতীয় দিনের শুরুতে ভারতীয় টেলেন্ডাররা সেভাবে সাপোর্ট দিতে পারলেন না যশস্বী। ফলও যা হওয়ার তাই হল, তিনি দ্বিশতরান করলেন বটে, কিন্তু আরও বেশি রান করা হল না। 209 রান করে অ্যান্ডারসনের বলে আউট হন যশস্বী। শেষদিকে তাড়াতাড়ি রান তুলতে গিয়ে আউট হন এই বাহাতি ওপেনার। যেখানে ভারতীয়দের মধ্যে কোনও ব্যাটার 40 রানের ইনিংসই পার করতে পারল না প্রথম ইনিংসে সেখানে যশস্বী একাই করলেন 209 রান, তাও অ্যান্ডারসনের মতো পোর খাওয়া বোলারদের সামলে। এটাই বলে দিচ্ছে আগামি দিনের ভারতীয় টেস্ট ওপেনিংয়ের স্পটটি ঠিক লোকের কাছেই রয়েছে। শুভমন গিল এবারও রোহিতের মতোই ব্যর্থ হন। একই অবস্থা শ্রেয়স আইয়ারের। সেখানে 22 বছরের যশস্বীই সকলকে দেখিয়ে দিলেন কিভাবে স্পিন এবং পেস, দুই বিভাগকে শাসন করতে হয়। সঙ্গে আরেকটি প্রশ্নও জোড়ালো হয়ে উঠল। ভারতের বর্তমান ব্যাটিং অর্ডারে যশস্বী ছাড়া সেভাবে কোনও বাহাতি ব্যাটার নেই। অলরাউন্ডার হিসেবে অক্ষর প্যাটেল বা জাদেজা থাকলেও টপ অর্ডারে শিখর ধাওয়ানের পর একজন বাঁহাতি ব্যাটার অত্যন্ত জরুরি ছিল। ঋষভ পন্থ থাকাতেও রাইট হ্যান্ড, লেফট হ্যান্ড কম্বিনেশন থাকত। কিন্তু এদানিংকালে যে কার্যত সেই কম্বিনেশন দেখাই যেত না। তীলক বর্মারা থাকলেও তারা কেউই দলের স্থায়ি সদস্য নয়। তাই যশস্বী ক্লিক করে গেলে আগামি দিনে সব ফরম্যাটেরই একজন পাকাপাকি লেফট হ্যান্ডেড ওপেনার যে ভারত পেতে চলেছে তা বলাই বাহুল্য। ভারতীয়দের মধ্যে কনিষ্ঠতম ক্রিকেটার হিসেবে 22 বছর বয়স পেরোনোর আগেই দুবার দ্বিশতরান করেছিলেন ভারতের বিনোদ কাম্বলি। একইভাবে সুনীল গাভাস্কারও 22 বছর বয়স পেরোনোর আগেই করেছিলেন দ্বিশতরান। টেস্টে ভারতীয়দের মধ্যে তৃতীয় কনিষ্ঠতম ক্রিকেটার হিসেবে সুনীল গাভাস্কার, বিনোদ কাম্বলির পর দ্বিশতরান করলেন যশস্বী। প্রথম ইনিংসে ভারতের 396 রানের মধ্যে যশস্বী একাই করলেন 209 রান। এর মধ্যে স্পিনারদের বিপক্ষে তিনি করেন 192 রান। বাকি 17 রান তিনি করেন বর্ষিয়ান পেসার জিমি অ্যান্ডারসনের বোলিংয়ে। ভারতীয় ব্যাটারদের মধ্যেও যশস্বী তৃতীয় কনিষ্ঠতম ক্রিকেটার যিনি হোম এবং আওয়ে ম্যাচে শতরানের নজির গড়লেন। এর আগে সচিন তেন্ডুলকর এবং বিনোদ কাম্বলি 22 বছর বয়সের আগেই এই নজির গড়েছিলেন। ভারত ইংল্যান্ড টেস্টের ইতিহাসে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ 7টি ছয় মারার নজিরও গড়লেন যশস্বী। এক সময় চালাতেন ফুচকার দোকান। সেখান থেকে আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস দলে সুযোগ পাওয়া। এরপর ভারতীয় দলের জার্সিতে বিশ্বক্রিকেটের তারকাদের শাসন করে টি20 বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের দরজা কড়া নাড়া শুরু করে দিলেন এই ওপেনার।