Date : 2024-02-20

বিজেপি বিধায়ককে চ্যালেঞ্জ রাজ্যের মন্ত্রীর। নথি দেখালে এক মাসেই কাজ।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ বুধবার রাজ্য বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে অন্য রকম ভূমিকায় দেখা গেল রাজ্য সরকারের জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতরের মন্ত্রী পুলক রায় কে। বিজেপির বিধায়কের আনা অভিযোগের জবাবে একেবারে চ্যালেঞ্জের সুরে অধিবেশন কক্ষেই পুলক রায় বললেন, “আপনি নথি দেখান। আমি কথা দিচ্ছি টেন্ডার করে একমাসের মধ্যে আপনার কাজ করে দেবো।”

এদিন প্রশ্নোত্তর পর্বে ডাবগ্রাম ফুলবাড়ির বিজেপি বিধায়ক পূর্ত দফতরের মন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করে বলেন তাঁর বিধানসভা এলাকায় পানীয় জলের সমস্যা রয়েছে। তিনি বলেন, “কেন্দ্রীয় সরকারের জল প্রকল্প নিয়ে বড় বড় কথা বলছেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই করছেন না। আমার বিধানসভা এলাকায় পানীয় জলের নলকূপ বসানোর জন্য জায়গা দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাও সেখানে এখনও কোনো কাজ শুরুই হয় নি।” প্রয়োজনীয় জমি জেলাশাসককে দেওয়া হয়েছে। জমি হস্তান্তর সংক্রান্ত সব কাজ করা হয়েছে বলেও দাবি করেন শিখা চ্যাটার্জি।

বিজেপি বিধায়কের অভিযোগের জবাব দেওয়ার সময়েই দফতরের মন্ত্রী পুলক রায় বলেন, “আপনি জেলাশসককে জমি দেওয়া সংক্রান্ত যে দাবি করছেন তার স্বপক্ষে কাগজ আমাকে দিন। আমি এই বিধানসভায় দাঁড়িয়ে আপনাকে কথা দিচ্ছি একমাসের মধ্যে টেন্ডার করে আপনার কাজ করে দেবো।” সেই সময় বিজেপি বিধায়ক শিখা চ্যাটার্জি বলেন “জমির নথি জোগাড়ের কাজ আমার নয়। আপনার দফতর আছে, তাদের বলুন। তখনই কিছুটা কটাক্ষ করে মন্ত্রী বলেন, জনপ্রতিনিধি হিসাবে আমাদের‌ও দায়িত্ব থাকে নিজের এলাকার কাজের বিষয়ে বিস্তারিত ও সঠিক তথ্য জানা। এই বিষয়ে পরে বিধানসভায় বিরোধী দলের ঘরে বসে ডাবগ্রাম ফুলবাড়ির বিধায়ক শিখা চ্যাটার্জি আরও অভিযোগ করে বলেন আমার এলাকার ডাবগ্রাম ১ ও ফুলবাড়ি ২ এলাকাতেও এখনও কোনও কাজ শুরু হয় নি। তবে মন্ত্রীর দাবি, তাঁরা পানীয় জল নিয়ে কোনও রকম রাজনীতি করার বিপক্ষে। কেন্দ্র সরকার অন্য আর‌ও বেশ কয়েকটি বিষয়ের মতো পানীয় জলের ক্ষেত্রেও সময়মতো টাকা দিচ্ছে না। তাও মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে তাঁর দফতর রাজ্যের প্রায় ৭৪,৮৫,৯০৯ টি বাড়িতে ইতিমধ্যেই (মঙ্গলবার পর্যন্ত) পানীয় জলের লাইন পৌঁছে দিয়েছে।