Date : 2024-02-24

সন্দেশখালি গিয়েছেন। এবার চোপড়া যান। রাজ্যপালকে আর্জি তৃণমূলের

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : সোমবার সন্দেশখালির পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সরেজমিনে সন্দেশখালি গিয়েছিলেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস। এবার তাঁকে চোপড়ার ঘটনা খতিয়ে দেখতে যাওয়ার জন্য আবেদন করলো তৃণমূল কংগ্রেস।

সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে রাজ্যপালের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ও যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করার কথা বলতে গত শনিবার রাজভবনে গিয়েছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তার পরপরই সফর কাটছাঁট করে কলকাতায় ফেরেন রাজ্যপাল। সোমবার সকালে কলকাতায় ফিরে তিনি যান সন্দেশখালি। সেখানে গ্রামবাসীদের সঙ্গে দেখা করেন, কথাও বলেন তিনি। এরমধ্যে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ায় একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে যায়। সেখানে সীমানা এলাকায় নর্দমা খোঁড়ার কাজ করছিল বিএসএফ। সেখানেই নর্দমার পাঁচিল চাপা পড়ে ৪ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার খবর জানাজানি হতেই তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বিএসএফের প্রতি কাজে অবহেলা এবং সেই কারণেই ৪ শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের। এবার এই ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রাজ্যপালের কাছে আর্জি জানানো হয়েছে যে তিনি যেভাবে সন্দেশখালীর ঘটনায় স্বতঃপ্রণোদিতভাবে সন্দেশখালি পৌঁছেছিলেন, ঠিক সেই ভাবে চোপড়ার ঘটনাতেও যেন তিনি সেখানে যান পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে। পাশাপাশি রাজ্যপালের সাক্ষাৎ প্রার্থনা করে তাঁকে চিঠি দেওয়া হয়েছে যাতে তিনি ১২ সদস্যের একটি তৃণমূল প্রতিনিধি দলের সঙ্গে দেখা করেন। দুই তৃণমূল সংসদ দোলা সেন ও প্রতিমা মন্ডল এর স্বাক্ষরিত চিঠিতে রাজ্যপালের কাছে আর্জি জানানো হয়েছে যাতে যত শীঘ্র সম্ভব ১২ সদস্যের এই প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য তিনি সময় দেন। তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রের খবর, আগামী ১৫ তারিখ রাজ্যপাল তাদের সময় দিয়েছেন।