Date : 2024-05-26

এসএসসিকে তীব্র ভৎসনা! চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মজুমদার সশরীরে হাজিরা দিলেন বিচারপতি দেবাংশু বসাকের ডিভিশন বেঞ্চে।

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : দিনের পর দিন কেটে গেলেও তথ্য দিতে পারছে না এসএসসি। হতাশ বিচারপতি দেবাংশু বসাকের ডিভিশন বেঞ্চ। এসএসসির আইনজীবী সুতনু পাত্র আদালতকে সহযোগিতা করতে পারছেন না মন্তব্য বিচারপতি দেবাংশু বসাকের।

শুক্রবার মামলা শুনানি চলাকালীন মামলাকারীদের পক্ষের আইনজীবী আশীষ কুমার চৌধুরী জানান কম নম্বরেও
চাকরি পেয়েছে। এবং প্যানেলের উপর দিকে থাকা প্রার্থীরা চাকরি পায়নি অথচ একই ভাবে হাইকোর্টের নির্দেশে এসএসসি মাত্র কয়েকজনকে চাকরি দিয়েছে। অথচ বহু বঞ্চিত প্রার্থী যারা মেধা তালিকায় শীর্ষে ছিল তারা এখনো চাকরি পায়নি বলে অভিযোগ স্কুল সার্ভিস কমিশন এর পক্ষ থেকে হাইকোর্টে তারা একটা হলফনামা জমা দিয়ে বলেছিল যে ১৮৩ জনকে যারা র‍্যাঙ্ক জাম্প করে চাকরি পেয়েছেন তাদের চাকরি বাতিল করা হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে ১৮৩ জন চাকরিতে যোগদানই করেননি বাকিদের চাকরি বাতিলের প্রশ্ন আসছে কোথা থেকে। মেয়ো রোডের ধর্না মঞ্চের চাকরি প্রার্থীদের পক্ষে আইনজীবী আশীষ বাবু আর বলেন,
প্রচুর শূন্যপদ থাকা সত্বেও এসএসসি তালিকা প্রকাশ করেছে নি। এসএসসির স্বচ্ছতা থাকলে সব চাকরি প্রার্থী চাকরি পেয়ে যেত।

২০১৬ সালের নবম দশম একাদশ দ্বাদশ গ্রুপ সি ও গ্রুপ ডি নিয়োগ পরীক্ষার বেশ কিছু তথ্য অমিল স্কুল সার্ভিস কমিশনে। শুক্রবার হাইকোর্টে হাজিরা দিয়ে এমনই তথ্য দিলেন রাজ্য স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মজুমদার। যা নথি আছে তার ভিত্তিতেই আদালতের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো। বিচারপতি দেবাংশু বসাক ও বিচারপতি শব্বার রশিদি বিশেষ ডিভিশন বেঞ্চকে এমনটাই জানালেন স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান।
এস এস সি নিয়োগ সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে আজ এস এস সির বোর্ড মেম্বারদের তলব করে বিশেষ ডিভিশন বেঞ্চ। সেই স্থলবি হাজিড়ায় এই মন্তব্য করেন এস এস সি চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মজুমদার।

এসএসসির গ্রুপ সি গ্রুপ ডি একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর নিয়োগের শূন্যপদ, নিয়োগ প্রক্রিয়া সংক্রান্ত সব নথি অত্যন্ত জরুরি। তা মামলার কাজে লাগবে। এসএসসি কোনও আধিকারিক তাদেরই দেওয়া হলফনামা পড়ে না আর তাই তথ্যও জানেনা।- বিচারপতি বসাক। এসএসসি নথি আদালতের চাওয়া মাত্রই দেওয়া হয় এসএসসি আইনজীবী কে। তিনিই ল পয়েন্ট তৈরি করেন। – এসএসসি চেয়ারম্যান। সোমবার আদালত নিয়োগ নিয়ে প্রশ্নের উত্তর চায় বিশেষ ডিভিসন বেঞ্চ। আমি উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো – প্রত্যুত্তর চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মজুমদারের।