Date : 2024-05-26

এবার নিউটাউনে জমি দখল করে একাধিক পার্টি অফিস তৈরির অভিযোগ শাসকদলের বিরুদ্ধে! চিহ্নিত করে অবিলম্বে ভেঙে ফেলার নির্দেশ

ষষ্ঠী চট্টোপাধ্যায়, সাংবাদিক : এবার নিউটাউনে জমি দখল করে একাধিক পার্টি অফিস তৈরির অভিযোগ শাসকদলের বিরুদ্ধে। নিউটাউনে ফুটপাত এবং ফাঁকা জায়গা দখল করে একাধিক পার্টি অফিস তৈরি করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। শাসকদলের নেতাদের রক্ত চক্ষুর ভয়ে মুখ বুজে বসে আছে হিডকো এবং এনকেডিএ। এমন অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় আদালতের কড়া ভৎসনার মুখে পড়ল এনকেডিএ। বেআইনিভাবে পার্টি অফিস গুলি তৈরি হয়ে থাকলে অবিলম্বে তা ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট।
অভিযোগ হিডকোর জমি দখল করে ওই পার্টি অফিস গুলো তৈরি হয়েছে। সাধারণত নিউটাউনে কোন নির্মাণের জন্য অনুমতি দিয়ে থাকে এনকেডিএ। মঙ্গলবার বিচারপতি অমৃতা সিনহার এজলাসে মামলার শুনানিতে এনকেডিএর আইনজীবী দাবি করেন এই মামলার কোন গ্রহণযোগ্যতা নেই। পাশাপাশি যেসব জায়গায় পার্টি অফিস গুলি তৈরীর অভিযোগ উঠছে সেগুলি খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এই বক্তব্য শুনে ই চটে যান বিচারপতি সিনহা। আইনজীবীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আপনি কি কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে সওয়াল করতে এসেছেন? ওই এলাকায় নির্মাণের জন্য অনুমতি আপনারা দিয়ে থাকেন। বিনা অনুমতিতে তাহলে কি করে ওই পার্টি অফিস গুলো তৈরি হল? বলতে চান আপনারা কিছুই জানেন না?’ ওই আইনজীবী তখন বলেন একটি বেআইনি নির্মাণ বা তিনের তৈরি অস্থায়ী পার্টি অফিসের হদিশ পাওয়া গিয়েছে সেটি হিডকোর জমিতে তৈরি হয়েছে এ ব্যাপারে হিডকোর কাছে বক্তব্য জানতে চাওয়া হয়েছিল কিন্তু তারা কোন ও বক্তব্য জানায়নি। নিউ টাউন থানার তরফে উপস্থিত আইনজীবী ও জানান অভিযোগ পাওয়ার পর বিষয়টি নিয়ে এনকেডিএ এবং হিডকো উভয়ের বক্তব্য জানতে চাওয়া হয়েছিল কিন্তু কোনও উত্তর মেলেনি।
এরপরই বিচারপতি বলেন মামলাকারী ওই পার্টি অফিস গুলির ছবি আদালতে দাখিল করেছে। ছবি দেখে অবিলম্বে ওই পার্টি অফিসগুলিকে চিহ্নিত করুন। এবং সেগুলির যদি কোন অনুমতি না থাকে তাহলে অবিলম্বে সেগুলিকে ভেঙে ফেলতে হবে। শুধু এনকেডিএ কর্তৃপক্ষ নয় পুলিশকেও ওই বেআইনি নির্মাণ গুলি খুঁজে বার করা নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি সিনহা। নির্দেশ কার্যকর করে ১০মে-র মধ্যে এনকেডিএ, হিডকো এবং নিউ টাউন থানাকে রিপোর্ট জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি সিনহার। ঐদিন মামলার পরবর্তী শুনানি।