Date : 2024-05-25

ক্ষীরে বিষক্রিয়া, হাসপাতালে ২৬/১১-র মাস্টার মাইন্ড

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক- ক্ষীরে বিষ! সেই ক্ষীর খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি ২৬/১১ তে মুম্বাইয়ের তাজমহল হোটেলে জঙ্গি হামলার মাস্টার মাইন্ড হাফিজ সইদ। পাকিস্তানের এক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি বলে জানা গেছে। শারীরিক অবস্থা এতোটাই আশঙ্কাজনক যে আইসিইউতে রাখা হয়েছে তাঁকে। অজ্ঞাত পরিচয় কেউ বা কারা তাঁর ক্ষীরে বিষ মিশিয়ে দেয় বলে জানা গেছে। তার ফলেই এই পরিস্থিতি বলে জানা গেছে। যদিও খবরের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে। কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই সইদকে হাসপাতালে রাখা হয়েছে পাক প্রশাসনের তরফ থেকে। মুম্বই হামলার মাস্টার মাইন্ড হাফিস সইদকে ২০০৮ সালে রাষ্ট্রপুঞ্জের থেকে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ বলে ঘোষণা করা হয়।

ভারতীয় গোয়েন্দা থেকে ইন্টারপোল, সইদকে নাগালে পেতে সকলেই চেষ্টা করেছিল। যদিও প্রথম থেকেই গুঞ্জন ছিল, পাকিস্তানে ঠাঁই পেয়েছেন তিনি। পরে রাষ্ট্রপুঞ্জও সেই জল্পনাকেই সিলমোহর দেয়। ২০২০ সালের ১২ই ফেব্রুয়ারী থেকে পাকিস্তানের হেফাজতে রয়েছেন তিনি। ৭ টি সন্ত্রাসের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ার কারণে ৭৮ বছরের সাজা ঘোষণা করা হয় তাঁর বিরুদ্ধে। পাকিস্তানের কাছে সইদের প্রত্যার্পণের দাবি করা হয়েছিল ভারত থেকে। সেই দাবিতে ইসলামাবাদ রাজি হয়নি। আইনের প্রতিবন্ধকতার তত্ত্ব খাড়া করা হয়। কয়েকদিন আগেই দাউদ ইব্রাহিমের খাবারেও বিষক্রিয়ার খবর এসেছিল। তখনও জানা গেছিল হাসপাতালে ভর্তি, অবস্থা খুবই খারাপ। যদিও সেই খবরের সত্যতা নিয়েও প্রশ্ন ছিল।