Date : 2024-05-26

ঠান্ডা এলাকায় ভোট কম, গরম এলাকায় ভোট বেশি। কারণ কি !

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক : শুক্রবার রাজ্যের যে তিনটি আসনে ভোট(election) হলো তারমধ্যে ৪ দার্জিলিং লোকসভার তিনটি বিধানসভা এলাকায় ভোট(election) পড়লো অপেক্ষাকৃত কম। যদিও সমতলের বিধানসভাগুলোতে তীব্র গরমকে উপেক্ষা করেই ভোটের হার বেশি। অবশ্য সব মিলিয়ে তিনটি আসনেই ২০১৯ এর তুলনায় এবার কম ভোট পড়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

২০১৯ এর নির্বাচনে দার্জিলিং আসনে ভোট(election) পড়েছিলো ৭৮.৯৩ শতাংশ। এবার প্রায় ৭ শতাংশ কমে মাত্র ৭১.৮৯ শতাংশ ভোট পড়েছে পাহাড় বেষ্টিত এই আসনে। দার্জিলিং লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত সাতটি বিধানসভার মধ্যে দার্জিলিং এ ৬২.১০ শতাংশ, কালিম্পং এ ৬৫.২২ শতাংশ ও কার্শিয়ং এ ৬৫.০৪ শতাংশ ভোট পড়েছে। তবে এই কেন্দ্রের অন্তর্গত সমতল এলাকা মাটিগাড়া-নক্সালবাড়িতে ৭৮.১২ শতাংশ, ফাঁসিদেওয়ায় ৭৯.৭৪, চোপড়ায় ৭৭.৯৮ ও শিলিগুড়ি বিধানসভা এলাকায় ভোট পড়েছে ৭১.৯৪ শতাংশ। ভোটের এই হারে দেখা যাচ্ছে পাহাড় এলাকায় অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা আমেজেও ভোট কম পড়েছে। এত কম ভোটের হার কিন্তু চিন্তায় রাখবে অনীত থাপাদের।

৫ রায়গঞ্জ লোকসভাতেও ভোটের হার ২০১৯ এর তুলনায় কম। ২০১৯ সালে এই কেন্দ্রে মোট ভোট পড়েছিলো ৭৯.৫৪ শতাংশ। এবার সেটা প্রায় তিন শতাংশ কমে হয়েছে ৭৬.১৮ শতাংশ। এই কেন্দ্রের অন্তর্গত চাকুলিয়া বিধানসভায় ভোট পড়েছে ৭১.১২ শতাংশ, গোয়ালপোখোর বিধানসভায় ৭০.২৮, হেমতাবাদে ৮০.৭৫, ইসলামপুরে ৭৩.৫৪, কালিয়াগঞ্জে ৮১.৯০, করণদীঘিতে ৭৬.৭২ ও রায়গঞ্জ বিধানসভা এলাকায় ভোট(election) পড়েছে ৭৭.২৯ শতাংশ।

অন্য দুটি আসনের তুলনায় ভোটের দিন কিছুটা উত্তপ্ত‌ই ছিলো ৬ বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রটি। কিন্তু ভোটদানের হারে সেই উত্তাপ চোখে পড়ছে না। ২০১৯ এর ৮৩.৬০ শতাংশ ভোট এবার কমে হয়েছে ৭৯.০৯ শতাংশ। এই কেন্দ্রের সাতটি বিধানসভা এলাকায় ভোটের হার এরকম।

বালুরঘাট বিধানসভা ৮০.৬১ শতাংশ, গঙ্গারামপুরে ৮০.২৬ শতাংশ, হরিরামপুরে ৭৭.৮৭, ইটাহারে ৭৫.২৭, কুমারগঞ্জে ৭৯.৫৮, কুশমন্ডিতে ৭৯.৭৮ এবং তপন বিধানসভায় ৮০.৮২ শতাংশ। শুক্রবার ভোটের দিন এই তপন বিধানসভা এলাকাতেই পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়ান বিজেপি প্রার্থী সুকান্ত মজুমদার।

আরো পড়ুন: দুঃশ্চিতার মধ্যে একাধিক সরকারি স্কুল।