Date : 2024-05-26

দ্বিতীয় দফাতেও ১০০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রিয় বাহিনী। দেখুন কোন জেলায় কত কোম্পানি বাহিনী থাকছে।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ প্রথম দফার মতো দ্বিতীয় দফাতেও একশো শতাংশ বুথে কেন্দ্রিয় বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিল নির্বাচন কমিশন। যে জন্য আরও ২২ কোম্পানি কেন্দ্রিয় বাহিনী আসছে রাজ্যে। সব মিলিয়ে রাজ্যে প্রায় ২৯৯ কোম্পানি বাহিনী থাকছে দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের সময়।

আগামি ১৯ এপ্রিল রাজ্যে প্রথম দফার নির্বাচনে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার ও জলপাইগুড়ি আসনের প্রতিটি বুথে কেন্দ্রিয় বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। যে কারণে উত্তরবঙ্গের এই তিনটি জেলায় ইতিমধ্যেই বাহিনী পৌঁছে গিয়েছে। পরের দফায় অর্থাৎ ২৫ এপ্রিল ভোট রয়েছে উত্তরবঙ্গের‌ই রায়গঞ্জ, বালুরঘাট ও দার্জিলিং আসনে। এই তিন আসনের জন্য কোথায় কত বাহিনী মোতায়েন করা হবে তার একটা রুপরেখা তৈরি করেছে কমিশন। কমিশন সূত্রে খবর, এই মুহূর্তে রাজ্যে প্রায় ২৭২ কোম্পানি কেন্দ্রিয় বাহিনী রয়েছে। প্রথম দফার নির্বাচন মিটে গেলে সেই বাহিনীর একটা অংশকে স্ট্রং রুমের নিরাপত্তার জন্য মোতায়েন করতে হবে। ফলে দ্বিতীয় দফার ভোটের সময় ১০০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রিয় বাহিনী মোতায়েন করার জন্য আরও বাহিনী প্রয়োজন। কমিশন সূত্রে খবর, এই প্রয়োজন মেটাতে সিকিম ও মেঘালয় থেকে যথাক্রমে ৯ ও ১৩ কোম্পানি আরও বাহিনী রাজ্যে আসছে। ফলে মোট (২৭২+২২=)২৯৯ কোম্পানি কেন্দ্রিয় বাহিনী কমিশনের হাতে থাকছে। এর মধ্যে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় ৭৩ কোম্পানি, রায়গঞ্জ পুলিশ জেলায় ৬০ কোম্পানি, ইসলামপুর পুলিশ জেলায় ৫১ কোম্পানি, দার্জিলিং পুলিশ জেলায় ৫১ কোম্পানি, শিলিগুড়ি পুলিশ জেলায় ২১ কোম্পানি ও কালিম্পং পুলিশ জেলায় ১৬ কোম্পানি বাহিনী থাকবে। অর্থাৎ রায়গঞ্জ ও বালুরঘাট আসনের জন্য ১৮৪ কোম্পানি ও দার্জিলিং আসনের জন্য মোট ৮৮ কোম্পানি কেন্দ্রিয় বাহিনী মোতায়েন থাকছে বুথের নিরাপত্তার জন্য। এছাড়া বুথের বাইরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিশাল সংখ্যক রাজ্য পুলিশ তো থাকছেই। দ্বিতীয় দফার ভোট মিটে গেলে স্ট্রং রুমের নিরাপত্তা ও ভোট পরবর্তী হিংসা মোকাবিলার জন্য ৬ কোম্পানি বাহিনী রেখে দিয়ে বাকি বাহিনী তৃতীয় দফার চার আসনের জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হবে।‌ তবে তার আগে নিশ্চিত করেই আরও বেশ কিছু কেন্দ্রিয় বাহিনী রাজ্যে আসবে বলেই কমিশন সূত্রে খবর।