Date : 2020-12-03

পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় পঞ্চভূতে বিলীন বড়মা

বনগাঁ : শোকের ছায়া ঠাকুরনগরের মতুয়া কলোনিতে । মাতৃহারা মতুয়ারা বড়মায়ের মরদেহ নিয়ে শোভাযাত্রার পর পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর অন্তেষ্টি করলেন । বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ হয় শেষকৃত্য। বীণাপাণি দেবীর স্বামী প্রমথরঞ্জন ঠাকুরের বেদির পিছন দিকে মায়ের মুখাগ্নি করেন ছোট ছেলে মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর। মতুয়া মহাসংঘের প্রধান বীণাপাণি দেবীকে নিয়ে শোভাযাত্রায় যাওয়া হয় একটি পুষ্প সজ্জিত শববাহী শকটে।

মেট্রো দুর্ভোগে কি রাশ টানবে চীনের নয়া রেক?

পথ চলতি মানুষ ফুল মালা দিয়ে বড়মাকে অন্তিম শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। পুলিশ নির্দিষ্ট রুট ঠিক করে দেয়। সেই পথেই এগোয় শোভাযাত্রা । এরপর মতুয়া ভক্তরা বড়মায়ের দেহ কাঁধে নিয়ে পৌঁছে যান ঠাকুরবাড়ীতে। এরসঙ্গে চলতে থাকে বিশেষ শোক সঙ্গীত ও কীর্তন। প্রথমরঞ্জন ঠাকুরের সমাধির পাশে বড়মার দেহ রাখা হয়। দুপুর তিনটে নাগাদ রাজ্য পুলিশের তরফে গান স্যালুট দেওয়া হয় বীণাপাণি দেবীকে। বাড়ির আমগাছের কাঠ জড়ো করা হয়। নিয়ম অনুযায়ী,  ঠাকুর পরিবারের সদস্যদের দাহকাজ হয় বাড়ির আমকাঠেই।

হাওড়ার এক ভক্ত দাহ করার জন্য ঘি নিয়ে যান। স্থানীয় বিধায়ক জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকসহ তৃণমূলের একাধিক শীর্ষস্থানীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন। এদিন বিজেপির তরফে উপস্থিত ছিলেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয় ও মূকুল রায় ।


বড়মায়ের শেষযাত্রায় মৌন মিছিল মতুয়াদের

রাজ্য পুলিশের তরফে গান স্যালুট