Date : 2021-02-28

অস্ট্রেলিয়ায় বিরল প্রজাতির ৬০ টি পাখীর অস্বাভাবিক মৃত্যু…

ওয়েব ডেস্ক: আকাশ থেকে মাটিতে আছড়ে পড়ছে পাখী। আর তারপরেই ছটফট করতে করতে মৃত্যু হচ্ছে তাদের। তাই ধেখে চমকে উঠেছেন এলাকার মানুষ। প্রথমে তারা বুঝতেও পারেননি আকাশ থেকে এভাবে ছিটকে কি পড়ছে? মাটিতে পড়ার পর তারা লক্ষ্য করেন সেগুলি আসলে বিরল প্রজাতির পাখী। ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণাংশে অ্যাডিলেডের একটি খেলার মাঠে। স্থানীয় বাসিন্দাদের খবর, পাখীগুলি সবই সাদা ও গোলাপী রঙের এবং কিছুটা তোতা পাখীর মতো দেখতে।

এগুলি অস্ট্রেলিয়ার বিরল প্রজাতির পাখী। আচমকাই আকাশে দলবদ্ধভাবে উড়তে উড়তে মাটিতে ছিটকে এসে পড়ে পাখীগুলি। স্থানীয় বন দফতরের হিসেবে প্রায় ৬০টি বিরল প্রজাতির পাখীর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনা চোখে পড়তেই পুলিশ ও বন দফতরকে খবর দেয় স্থানীয় বাসীন্দারা।

আরও পড়ুন: জলশঙ্কটের বিশ্বে পাখীদের পানীয়জলের ব্যবস্থা করে নজির গড়ল এই মরু শহর

পুলিশ এসে অর্ধমৃত অবস্থায় কিছু পাখীকে উদ্ধার করে। প্রাথমিক তদন্তে পশু চিকিৎসকদের ধারনা বিষক্রিয়ার ফলে মৃত্যু হয়েছে পাখীগুলির। এই ধরনের বিষ সাধারনত ক্ষেতে ব্যবহার করা হয় পোকামাকড়ের থেকে ফসলকে রক্ষা করার জন্য।

হয়েতো ফসল বাঁচাতে কেউ এই বিষ পাখীগুলির উপর প্রয়োগ করেছে কেউ। এই বিষ ধিরে ধিরে কাজ করেছে পাখীগুলির শরীরে। পাখীগুলিকে স্থানীয় নামে করেলা পাখী বলা হয়। সারা পৃথিবীতে এই পাখীর সংখ্যা নেই বললেই চলে একমাত্র অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণ অংশে এই পাখী দেখা যায়। বেশ শক্তিশালী এই পাখি বাড়ি, কাঠের জিনিসপত্র, বিদ্যুতের লাইন ঠোঁট দিয়ে আঁচড়ে নষ্ট করে দিতে পারে। তাছাড়া ফসলেরও ক্ষতি করে। ফলে পুলিশের ধারণা, ফসল বাঁচাতেই পাখিগুলোকে কেউ বিষ দিয়েছিল।