Date : 2019-07-21

বিদেশি বিনিয়োগ মামলায় ইন্দিরা জয়সিং এর বাড়িতে তল্লাশি সিবিআইয়ের

ওয়েব ডেস্ক : দেশজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি বেশ কিছুদিন আগেই শুরু করেছিল সিবিআই। এবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং এবং আনন্দ গ্রোভারের বাড়িতে হানা দিল সিবিআই। ফরেন ফান্ডিং রুল ভঙ্গ করার কারনে বৃহস্পতিবার দিল্লির নিজামুদ্দিনের পূর্ব অফিসে হানা দেয় সিবিআই এর একটি দল। তবে দিল্লির পাশাপাশি মুম্বইয়ের অফিসেও হানা দিয়েছে সিবিআইয়ের আরও একটি দল।

‘লইয়ারস কালেক্টিভ’ নামে একটি এনজিও সংস্থার বিরুদ্ধে ফরেন ফান্ডিং রুল ভঙ্গ করার অভিযোগ ওঠে। যে কারণে এই তল্লাশি বলে জানা গেছে। মিনিস্ট্রি অফ হোম অ্যাফেয়ারসের তরফে করা অভিযোগের ভিত্তিতে রজু করা হয় মামলা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ১৮ জুন ২০১৯ তারিখে সিবিআই এর তরফে এই সংস্থার বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল মামালা দায়ের করা হয়। সংস্থার বিরুদ্ধে বিদেশি সাহায্যের অন্যায় ব্যবহার নিয়ে অভিযোগ ওঠে। এই সংস্থার ট্রাস্টি এবং ডাইরেক্টর আনন্দ গ্রোভারের বিরুদ্ধেও দায়ের হয়েছে অভিযোগ।

এছাড়া সংস্থার সঙ্গে জড়িত নাম না জানা এমন পদাধিকারী ও আমলার বিরুদ্ধেও দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ। ১৯৮১ সালে তৈরি এই সংস্থার ওয়েবসাইটে তাদের দাবি, সমাজের বিশেষ শ্রেণীর মানুষের কাছে আইনের মাধ্যমে তাদের অধিকার পৌছে দেওয়া এবং এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন সংক্রান্ত বিষয়ে তাদের আইনি সহায়তা প্রদান করার ওপরেই তৈরি করা হয়েছে এই এনজিও।

ভারতের প্রথম মহিলা বাসচালকের পালক প্রতীক্ষা দাসের ঝুলিতে

 মন্ত্রকের অভিযোগ ২০০৯ থেকে ২০১৪ সালে অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনারেল থাকা কালীন ফরেন ফান্ড হিসেবে ৯৬.৬০ লক্ষ টাকা পেয়েছিল এই সংস্থা।এও অভিয়োগ ওঠে যে সেই সময় পদে থাকাকালীন মন্ত্রকের অনুমতি ছাড়াই বিদেশ সফরের সময় উক্ত এনজিও থেকে পয়সা খরচ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে।

মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ২০০৬-২০০৭ এবং ২০১৪-২০১৫ তে ৩২.৩৯ কোটি বিদেশি সাহায্য পেয়েছিল সংস্থা। যদিও অভিযোগের বিরুদ্ধে প্রেস বিবৃতি জারি করেছে ইন্দিরা জযসিং এবং আনন্দ গ্রোভার।