Date : 2019-10-17

পুজোর আগেই সুখবর, ৫৪ হাজার কোটি টাকা সুদ হিসাবে জমা পড়ছে ইপিএফ অ্যাকাউন্টে…

ওয়েব ডেস্ক: উৎসবের মরসুমে এবার বড়সড় প্রাপ্তি হতে চলেছে এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্গানাইজেশনের আওতায় থাকা সরকারি বা বেসরকারি কর্মচারীদের। সুখবর আগেই শুনিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ারা। গত অর্থবর্ষে ইপিএফও-র আওতায় থাকা কর্মচারীদের যে পরিমান টাকা জমা হয়েছে তার উপর ৮.৬৫ শতাংশ হারে সুদ দেওয়া হবে। ইপিএফ-র আওতায় থাকা ৬ কোটির বেশি সরকারি ও বেসরকারি কর্মচারী এই হারে সুদ পাবেন বলে জানানো হয়েছে কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রকের তরফে। খুব তাড়াতাড়ি এই নতুন হারে সুদ হিসাবে প্রায় ৫৪ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হবে ইপিএফও-র তরফে।

চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষের জন্য কর্মীদের পিএফ আমানতে ৮.৬৫ শতাংশ হারে সুদ দেওয়ার বিষয়টিতে অনুমোদন দেয় ইপিএফও-র কেন্দ্রীয় অছি পরিষদ। তারপর বিষয়টিতে ছাড়পত্র দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের কাছে পাঠানো হয়। অর্থ মন্ত্রকের সবুজ সঙ্কেত পাওয়ার পর সুদের টাকা গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে। বর্তমানে, পিএফ-এর টাকা তোলার ক্ষেত্রে ৮.৫৫ শতাংশ হারে সুদ হিসাব করছে ইপিএফও। ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষের জন্য এই সুদের হার অনুমোদন করা হয়েছিল। এখন ইপিএফও- তে ৮.৫৫ হারে সুদ দেওয়া হয়। তবে এবার থেকে ৮.৬৫ শতাংশ হারে সুদ দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে ইপিএফও-র তরফে। ২০১৭-১৮ অর্থ বর্ষের জন্য সুদের হার নির্ধারিত ছিল ৮.৫৫ টাকা। তবে এবার থেকে মিলবে বাড়তি সুদ।

আরও পড়ুন: পুজোর আগে ৪দিন ব্যাঙ্ক ধর্মঘট, কপালে হাত ব্যবসায়ীদের

এর ফলে বাড়তি সুদ পাবেন প্রায় ৬ কোটি শ্রমিক। এতদিন পর্যন্ত যার যে পরিমান টাকা জমা আছে তার উপর মিলবে ৮.৬৫ হারে সুদ। যাঁরা ইপিএফ-এ টাকা জমান, তাঁরা যাতে সহজেই ইপিএফ ব্যালান্স জানতে পারেন, সেই জন্য ইপিএফ ওয়েবসাইটে ই-পাসবুক অপশনটি রয়েছে। এছাড়াও আরও সহজে যাতে সাধারণ মানুষ ইপিএফ ব্যালান্স দেখে নিতে পারেন, তার জন্য মিসড কল দিয়ে সহজেই ব্যালান্স জানার পরিষেবা শুরু করেছে ইপিএফ কর্তৃপক্ষ। ইপিএফ-এ যাদের অ্যাকাউন্ট রয়েছে, তারা নিজেদের রেজিস্টার মোবাইল নম্বর থেকে ০১১-২২৯০১৪০৬ নম্বরে মিসড কল দিলেই তাদের ইপিএফ-এর ব্যলেন্স জানতে পারবেন। এছাড়া ইপিএফও অ্যাপ ডাউনলোড করেও নিজের ইপিএফ অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স জানতে পারবেন।