Date : 2022-01-26

রাজীব মামলার শুনানি শেষ হলেও স্থগিত রায়দান …..

কলকাতা: সারদাকাণ্ডে প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমারেক আগাম জামিনের মামলার শুনানির শেষে আজ রায় দানের কথা ছিল কলকাতা হাইকোর্টে। কিন্তু সোমবার সেই মামলার রায় ঘোষণা স্থগিত করে দিয়েছে বিচারপতি শহীদুল্লাহ মুন্সী ও বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্তর ডিভিশন বেঞ্চ। মঙ্গলবার কোর্টে পুজোর ছুটি পড়ে যাওয়ার কথা, ফলে মঙ্গলবারই রাজীব মামলার রায় ঘোষণা করতে পারে ডিভিশন বেঞ্চ। এর আগে সিবিআইয়ের সমন খারিজের দাবিতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন প্রাক্তন নগরপাল। সেই মামলায় বিচারপতি প্রতীক প্রকাশ বন্দ্যোপাধ্যায় সুরক্ষা কবচ প্রদানের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি বিধি-নিষেধ জারি করেছিলেন।

এরপর মামলাটি দৈনিক শুনানির ভিত্তিতে টানা এক মাস ধরে চলে বিচারপতি মধুমতি মিত্র-র এজলাসে । সেই মামলার রায় ঘোষণা করতে গিয়ে বিচারপতি মিত্র রাজীব কুমারের রক্ষাকবচ প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে কলকাতা হাইকোর্টের পক্ষ থেকে জানিয়ে রাজীব কুমারকে সিবিআই-এর তরফ থেকে গ্রেফতারিতেও আর কোন বাধা নেই। কলকাতা হাইকোর্টের এই রায়দানের পর রাজীব কুমার বারাসত আদালতে এবং পরে আলিপুর জজ কোর্টে আগাম জামিনের জন্য আবেদন করেন। কিন্তু আলিপুর ফৌজদারি আদালতে রাজীব কুমারের গ্রেফতারি পরোয়ানা চেয়ে দ্বারস্থ হন সিবিআই। অবশ্য সিবিআইয়ের আবেদন খারিজ করে আদালত হাইকোর্ট এবং সুপ্রিমকোর্টের রায়কে বহাল রেখে জানায়, পরোয়ানা ছাড়াই রাজীবকে গ্রেপ্তার করতে পারবে সিবিআই।

আরও পড়ুন : মির্জাকে নিয়ে ঘটনার পুনঃনির্মান করতে মুকুল রায়ের ফ্ল্যাটে সিবিআই

একই সঙ্গে হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ বহাল রেখে রাজীবের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয় আলিপুর ফৌজদারি আদালত। এরপর গত সোমবার হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হন প্রাক্তন নগরপালের স্ত্রী সঞ্চিতা কুমার। আদালত সূত্রে জানা গিয়েছিল, গত শুক্রবার সিবিআইয়ের আইনজীবীরা এক ঘন্টা বক্তব্য রাখতে চেয়ে আদালতের কাছে আবেদন জানালে তা মঞ্জুর করেছিল ডিভিশন বেঞ্চ। শুনানির শেষে আগামীকাল রায় ঘোষণার উপরই নির্ভর করছে গোটা ঘটনার গতিপ্রকৃতি।