Date : 2019-12-16

২৫ বছর বয়সে ‘সিঙ্গেল মাদার’! সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন বিক্রম ভাটের সঙ্গে…

ওয়েব ডেস্ক:- ফেমিনা মিস ইণ্ডিয়ার মঞ্চে ঘোষণা করার পর মাথায় রত্ন খোচিত মুকুট পড়ানো হচ্ছিল তাঁর, দুরদর্শনে সম্প্রচার করা হয়েছিল সেই দৃশ্য। গোটা দেশ তথা কলকাতার নজর তখন টিভির পর্দায়। ১৯৯৪ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে মিস ইণ্ডিয়া হয়েছিলেন সুস্মিতা সেন। একই সঙ্গে তিনি পেয়েছিলেন মিস ইউনিভার্সের (তৃতীয়) সম্মান। সেই প্রথম কোনো বাঙালি মেয়ে আন্তর্জাতিক সৌন্দর্য্য প্রতিযোগিতার মঞ্চে সর্বোচ্চ স্থান লাভ করেন। দেশ তথা বাঙালি হিসাবে গর্বিত হয়েছিলেন সকলেই। ৪৩ পেরিয়ে আজ ৪৪-এ পা দিলেন প্রাক্তন বিশ্ব সুন্দরী সুস্মিতা সেন। হিন্দি, তামিল এমনকি বাংলা ভাষাতেও বিভিন্ন চলচ্চিত্রে তাঁর অভিনয় মনে রেখেছেন দর্শক।

তবে তাঁর ব্যক্তিজীবন আনাচে-কানাচে রয়েছে ছক ভাঙার গল্প। প্রবাসী বাঙালি পরিবারে জন্ম হলেও বাংলা ভাষায় বেশ সাবলীল, কলকাতার বাড়িতে চলে আসেন সুযোগ পেলেই। বাবা সুবীর সেন ভারতীয় বিমান বাহিনীর উইংকমান্ডার ছিলেন।

‘আশিকি মে তেরি’ গানে হিমেশের সঙ্গে গলা মেলালেন রানু, শুনে নিন গান

মা শুভ্রা সেন দুবাইতে অলঙ্কার ব্যবসায় যুক্ত ছিলেন। ২০০০ সালে নিজের সন্তান হিসাবে ‘রেনী’কে দত্তক নেবেন বলে স্থির করেন। ২৫ বছর বয়সী সুস্মিতা সেন তখন একাকী, অবিবাহিত। সন্তান দত্তক নেওয়ার বিষয়ে অভিভাবকত্ব নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তবে কোর্টের ছাড়পত্র পেয়ে যান খুব সহজেই।

‘শ্যুটিং-এর ফাঁকে রোজ তেলেভাজা খেতাম’, কলকাতায় এসে অকপট রাখি

পরে অবশ্য আরও এক মেয়েকে দত্তক নেন তিনি। দুই মেয়ের অভিভাবকত্ব একাই সামলেছেন। সিঙ্গেল মাদার হয়ে তাক লাগিয়ে ছিলেন গোটা দেশকে। দুই মেয়ে ও নিজেকে নিয়ে বেশ আছেন সুস্মিতা । আর তাঁর এই দুই মেয়ে যেন চোখের মণি। ‘চাঁদের যে কলঙ্ক থাকে’, সুস্মিতা সেন বলিউডে পা রাখার পরেই গুঞ্জন উঠেছিল,বিক্রম ভাটের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন এই বাঙালি কন্যা।

সম্পর্ক অবশ্য বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। সম্পর্কের কথা বিভিন্ন মাধ্যমের কাছেই স্বীকার করে নিয়েছেন সুস্মিতা। বিক্রম ভাটের দাম্পত্য জীবন নষ্ট হয়ে যাক কখনই চাইতেন না সুস্মিতা, এমনটাও বলেছেন তিনি। সম্পর্ক নিয়ে এখনও তাদের মধ্যে কোন দ্বিধা দ্বন্দ্ব নেই বলে জানিয়েছেন সুস্মিতা।