Date : 2020-09-25

কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আজ শুরু হল মাধ্যমিক পরীক্ষা…

ওয়েব ডেস্ক: আজ থেকে শুরু হল ২০২০ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষা। এইবছর পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের সংখ্যা বেশি। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় সোমবারই জানান, গত বারের তুলনায় এ বার পরীক্ষার্থী কমেছে ৩৩ হাজারের কিছু বেশি। পরীক্ষার্থী হ্রাসের প্রবণতা দেখা গিয়েছিল ২০১৭ থেকেই। মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১০ লক্ষ ১৫ হাজার ৮৮৮। ছেলে ৪ লক্ষ ৩৯ হাজার ৮৭৯ জন। ছাত্রীর সংখ্যা ৫ লক্ষ ৭৬ হাজার ৯ জন। প্রশ্নফাঁস রুখতে পরীক্ষা চলাকীলান ৪৩ ব্লকে ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হচ্ছে। মঙ্গলবার, পরীক্ষা শুরুর ১ ঘন্টা আগে সকাল ১১ টায় এলগিন রোডের কাছে ইউনাইটেড মিশনারি স্কুলে সার্বিক নিরাপত্তা, ট্রাফিকের হাল হকিকত ও শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি দেখতে সেখানে উপস্থিত হন অনুজ শর্মা।

আগামীকাল শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষা, ৪২ ব্লকে বন্ধ ইন্টারনেট

গতকাল বিধানসভায় রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছিলেন, পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে সবরকম সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে প্রস্তুত রাজ্য প্রশাসন। এমনকি তিনি বলেন, কোন পরীক্ষার্থীকে যদি দীর্ঘক্ষণ পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছনোর জন্য অপেক্ষা করতে হয় তবে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে দিতে যেন পুলিশ প্রশাসন সবরকম ভাবে সাহায্য করে।

মাধ্যমিক পরীক্ষার সেন্টারের আশেপাশের এলাকায় যাতে যানজট সৃষ্টি না হয়, সেইজন্য বিশেষ ট্রাফিক সার্কুলেশান প্ল্যান করেছে কলকাতা পুলিশ। জানা গিয়েছে, যেসমস্ত স্কুলগুলিতে পরীক্ষা হবে, তার আশেপাশে একজন করে সার্জেন্ট রাখা থাকবে, যারা যানজটে আটকে পড়া পরীক্ষার্থীদের সেন্টারে পৌঁছে দিতে বাইক রাখা থাকবে। পরীক্ষার্থীদের রাস্তার নির্দেশ দেওয়ার জন্যেও থাকবেন পুলিশ। কমিশনারেট এলাকার গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে বাড়ানো হয়েছে পুলিশ কর্মীর সংখ্যা। বিটি রোড ও কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়েতে যেমন নির্দিষ্ট জায়গায় পুলিশ মোতায়েন থাকবে, তেমনই থাকবে পুলিশি টহলদারি ভ্যানও।

প্রয়াত প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ তাপস পাল

এদিকে টালাব্রিজ ভাঙার কাজ শুরু হওয়ায় উত্তর কলকাতার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে যানজট রুখতে তৎপর রয়েছে কলকাতা পুলিশ। পরীক্ষার দিনগুলিতে সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত স্টেশন রোডের মতো যে সব রাস্তায় অতিরিক্ত গাড়ির চাপ থাকে, সেখানে বড় গাড়ি ঢুকতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ। যানজটে যাতে পরীক্ষার্থীদের নাকাল হতে না হয়, সে জন্য একগুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর জেলা পুলিশ। যানজট নিয়ন্ত্রণে বিশেষ দল গড়া হয়েছে। বারুইপুর, নরেন্দ্রপুর, সোনারপুর, জয়নগর, ক্যানিং ও ভাঙড় থানা এলাকার দশটি এলাকা যানজটপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই দশ জায়গায় সকাল থেকেই রাখা হবে অতিরিক্ত পুলিশ কর্মীদের।