Date : 2024-05-26

বিধানসভা ভোট এগিয়ে আসবে ! কিন্তু কিভাবে ?

সারা দেশে এখন লোকসভা নির্বাচনের আবহ। তার মধ্যেই এরাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের ডঙ্কা বাজিয়ে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। লোকসভায় এরাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের থেকে একটাও আসন বেশি পেলে না কি এগিয়ে আসবে বিধানসভা নির্বাচন। সোমবার এমন‌ই মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ সোমবার কলকাতা প্রেস ক্লাবে মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে এসে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন এরাজ্যে বিধানসভা ভোট এগিয়ে আসতে চলেছে। হিসাব মতো পশ্চিমবঙ্গে পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে ২০২৬ সালে। অর্থাৎ এখনও প্রায় দুই বছর বাকি।

কিন্তু সুকান্ত মজুমদারের মতে তার অনেক আগেই এই সরকার পড়ে যাবে। ফলে এগিয়ে আসবে বিধানসভা নির্বাচন। এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে সুকান্ত মজুমদার বলেন, “যদি এই নির্বাচনে (লোকসভা নির্বাচন’২০২৪) বিজেপি এই রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের থেকে একটি আসনও বেশি পায় তাহলে বিধানসভা নির্বাচন এগিয়ে আসবে।” তাহলে কি রাজ্যের নির্বাচিত সরকার ফেলে দেওয়ার বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে বিজেপি ?

সুকান্ত মজুমদার কে প্রশ্ন করা হয়, যেভাবে মহারাষ্ট্র সহ অন্য বেশ কয়েকটি রাজ্যে সরকার ফেলে দিয়ে বিজেপি ক্ষমতা দখল করেছে, এই রাজ্যেও কি সেভাবেই ক্ষমতা দখল করতে চাইছেন তাঁরা! উত্তরে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানান, “আমরা কোন নির্বাচিত সরকারকে ফেলে দেওয়ার পক্ষপাতী নই।

এবং আমরা সেই নীতিতে বিশ্বাস‌ও করি না”। খুব ইঙ্গিত পূর্ণ মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, “সরকার যদি নিজে নিজে পড়ে যায় তাহলে আলাদা বিষয়।” মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর নাম উল্লেখ না করেই এরপর সুকান্ত মজুমদার বলেন, “ভাইপো পিসির যদি গন্ডগোল হয় তাহলে আমাদের কি করার আছে! তাহলে তো বিজেপি না থাকলেও সরকার পড়ে যাবে।” মহারাষ্ট্রের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন “কোথাও মহারাষ্ট্রে কাকা ভাতিজার গন্ডগোল। সেখানে বিজেপির কি করার আছে? বিজেপি তো শুধু রিক্ত স্থান পূরণ করছে।”

এদিকে বিধানসভা নির্বাচন এগিয়ে আসার বিষয়ে সুকান্ত মজুমদার এর এই মন্তব্য প্রসঙ্গে তৃণমূল মুখপাত্র প্রাক্তণ সাংসদ শান্তনু সেন বলেন, “এই লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল বিপুলভাবে জয়ী হবে। আর লোকসভার নির্বাচনের ফলাফলের উপর রাজ্যের সরকার পড়ে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা থাকে না।”

বিজেপিকে আক্রমণ করে শান্তনু সেন আরো বলেন, “এই কথার মধ্য দিয়ে হয় তারা অপারেশন লোটাস করার অথবা গায়ের জোরে সরকার ভেঙে দেওয়ার ভয় দেখাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে।” বিজেপিকে কিছুটা হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, “বিজেপি জেনে রাখুক বাংলার মানুষের আশীর্বাদ পুষ্ট তৃণমূল কংগ্রেস সরকারকে এইভাবে ভাঙ্গা যাবে না।” সুকান্ত মজুমদার যেভাবে মহারাষ্ট্রের উদাহরণ টেনেছেন সেই উদাহরণকে সামনে রেখেই শান্তনু সেন বলেন, “আমাদের পশ্চিমবাংলায় কোন একনাথ শিন্ডে বা অজিত পাওয়ারকে খুঁজে পাওয়া যাবে না।”

আরও পড়ুন : প্রকাশিত হল ICSE এবং ISC শ্রেণীর পরীক্ষার ফল।