Date : 2024-06-23

কবে জয়েন্টের ফলপ্রকাশ?

পরীক্ষা হয়েছে ২৮ এপ্রিল। এখন রাজ্য জয়েন্টের ফল বেরোনোর অপেক্ষায় পরীক্ষার্থী থেকে অভিভাবক প্রত্যেকেই। কবে জয়েন্টের ফলপ্রকাশ?

নাজিয়া রহমান, সাংবাদিক: পরীক্ষা হয়েছে ২৮ এপ্রিল। এখন রাজ্য জয়েন্টের ফল বেরোনোর অপেক্ষায় পরীক্ষার্থী থেকে অভিভাবক প্রত্যেকেই। কবে জয়েন্টের ফলপ্রকাশ? রাজ্যের এই প্রবেশিকা পরীক্ষার মাধ্যমে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়, শিবপুর আইআইইএসটির মত একাধিক প্রতিষ্ঠানে পড়ার সুযোগ পান ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে ইচ্ছুক পড়ুয়ারা। সেরা কলেজগুলিতে ভর্তির প্রতিযোগিতা শুধুমাত্র র‍্যাঙ্ক কার্ডের প্রতীক্ষা। আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না পরীক্ষার্থীদের। এবার দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে মুক্তি পাবে রাজ্য জয়েন্টর ফল। wbjeeb.nic.in এই অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে রেজাল্ট দেখতে পাবেন পরীক্ষার্থীরা। এখন চলছে ওএমআর চ্যালেঞ্জের কাজ। ইতিমধ্যেই ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের উত্তরপত্র দেখে ফেলেছে এবং বোর্ডের উত্তরপত্রের সঙ্গে তারা চ্যালেঞ্জও করতে পারে। অর্থাৎ পরীক্ষার ফলপ্রকাশের সমস্ত প্রস্তুতি প্রায় শেষের পথে।

বোর্ড সূত্রে জানা গেছে সম্ভাব্য ২ জুন রাজ্য জয়েন্টের এর ফলপ্রকাশ। যদিও বোর্ডের পক্ষ থেকে এখনও ফল প্রকাশে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি। রাজ্য জয়েন্টের ফলপ্রকাশের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যার্থীদের উচ্চশিক্ষার আরও একটি পথ খুলে যাবে। ফলপ্রকাশের পর ইঞ্জিনিয়ারিং, আর্কিটেকচার এবং ফার্মাসি বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে ভর্তি হতে পারবে। চলতি বছর জয়েন্টে আবেদনকারীর সংখ্যা ১ লক্ষ ৪২ হাজার ৬৯৪ জন। ২০২৩ ছিল মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লক্ষ প্রায় ২৫ হাজার। পরীক্ষার্থী সংখ্যা বেশি হওয়ায় বেড়েছে পরীক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যাও। চলতি বছর পরীক্ষাকেন্দ্রের সংখ্যা ৩২৮,গতবছর সেই সংখ্যা ছিল ৩০৬টি। প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রে ছিল হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর যন্ত্র। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের আগে এই হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর যন্ত্র দিয়ে তাদের পরীক্ষা করা হয়। পাশাপাশি ছিল রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ডিটেক্টর বা আরএফডি।

আরও পড়ুন : রেমালের গেড়োয় আইপিএল ফাইনাল?