Date : 2024-05-26

প্রথম কালবৈশাখীর ঝড়ে রাজ্যে মৃত ১২

দীর্ঘ দাবদাহের পর সোম সন্ধ্যায় হ‌ওয়া কালবৈশাখীর ঝড়ে যেন প্রাণ ফিরে পেয়েছিলো রাজ্যবাসী। বিশেষ করে দক্ষিণ বঙ্গের মানুষজন একপ্রকার চাতক পাখির মতো আশায় ছিলেন কবে আসবে ঝড়। অবশেষে ঝড় এলো, তবে সেই ঝড়ে চলে গেলো ১২ টি তাজা প্রাণ।

সঞ্জু সুর, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ- তাপপ্রবাহের ঠেলা সামলাতে সামলাতে প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে উঠেছিলো। দক্ষিণ বঙ্গের মানুষজন অপেক্ষায় ছিলেন কবে একটু ঝড় বৃষ্টি হবে। এই সময়টা কালবৈশাখীর সময়। কিন্তু বৈশাখ মাস শেষ হতে চললেও একটিও কালবৈশাখীর দেখা পাওয়া যায় নি। ফলে আবহাওয়া দফতর থেকে সোমবার ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়ার পর এবং সত্যি সত্যিই সোমবার সন্ধ্যায় কালবৈশাখী ঝড় আছড়ে পড়ার পর স্বাভাবিকভাবেই খুশি হয়েছিলেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু এই খুশি স্থায়ী হলো না কয়েকটি পরিবারে।

কালবৈশাখীর

নবান্ন ও জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, সোমবারের ঝড়ে ও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দশ জন মারা গিয়েছেন। এর মধ্যে পূর্ব বর্ধমানে ৫ জন, পশ্চিম মেদিনীপুর ও পুরুলিয়া জেলায় ২ জন করে। এছাড়া দেওয়াল চাপা পড়ে নদীয়া জেলায় মারা গিয়েছেন ২ জন। পাশাপাশি ঝড়ের সময় গাছ চাঁপা পড়ে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এক জন মারা গিয়েছেন। রাজ্যে একদিনে ১২ জনের এই অস্বাভাবিক মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটের প্রচারে বাইরে থাকালেও নিজের এক্স হ্যান্ডেলে তিনি জানিয়েছেন, সরকারি আইন অনুযায়ী মৃতদের পরিবারকে সাহায্য করা হবে। জেলা প্রশাসন ও মৃতদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন : তৃতীয় দফায় বাংলার ১৩ প্রার্থী কোটিপতি