Date : 2024-05-26

প্রজ্জ্বলের বিরুদ্ধে জারি লুক আউট নোটিস

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক – চলছে লোকসভা নির্বাচন।এরই মধ্যে সেক্স টেপ বিতর্কে জড়ালেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দেবগৌড়ার নাতি তথা কর্নাটকের সাংসদ প্রজ্জ্বল রেভান্না। রাজনৈতিক মহলে রীতিমতো জল্পনা জনতা দল সেকুলারের নেতাকে কেন্দ্র করে। প্রজ্জ্বল রেভান্নার বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছেও চিঠি পাঠিয়েছেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী। সেই চিঠিতে জনতা দল সেকুলারের সাংসদ প্রজ্জ্বলের ডিপ্লোম্যাটিক পাসপোর্ট বাতিল করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, হাসান লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদের বিরুদ্ধে “লুক আউট” নোটিস জারি করেছে কর্ণাটক সরকার। যদিও তিনি জার্মানিতে রয়েছেন এবং সপ্তাহান্তে দেশে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে তাঁর বলে জানা গেছে। চলতি মাসের ৩-৪ তারিখ নাগাদ তিনি ফিরতে পারেন।

২৬শে এপ্রিল দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের দিন প্রজ্জ্বল রাভান্নার সেক্স টেপ বিতর্ক সামনে আসে। কর্ণাটক সরকারের সিআইডির স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম 41 CRPC- তে হাজিরার নির্দেশ দেয় সাংসদকে।

২৭শে এপ্রিল প্রজ্জ্বল ফ্রাঙ্কফুটের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় বিশেষ কাজে। যদিও এরই মধ্যে তাঁর আইনজীবী জি অরুন ৭ দিনের সময় চেয়ে চিঠি পাঠান এডিজি সিআইডিকে। তবে বিতর্কে জড়ানোর পরই প্রজ্জ্বল রাভান্না তাঁর এক্স হ্যান্ডেলে পোস্ট করেন, “বেঙ্গালুরুর বাইরে থাকার জন্য আমি তদন্ত প্রক্রিয়ায় উপস্থিত থাকতে পারিনি। আমি আইনজীবী মারফত সে কথা সিআইডিকে জানিয়েছি। সত্য শীঘ্রই সামনে আসবে।”

অন্যদিকে বিতর্কের মধ্যেই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দেবেগৌড়ার ছেলে তথা প্রজ্জ্বলের বাবা রেভান্না দাবি করেছেন, তাঁরা রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার। তিনি আরও জানিয়েছেন, রেভান্না ও তাঁর ছেলে উভয়েই আইনি লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত। সেক্ষেত্রে যদি কোনও অভিযোগ প্রমাণিত হয়, তাহলে আইন মেনে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন তিনি।

আরো পড়ুন: মেধাতালিকায় কোন জেলার কতজন