Date : 2024-06-23

যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার রেভান্না

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক- সেক্স স্ক্যান্ডালে অভিযুক্ত প্রজ্জ্বল রেভান্না অবশেষে গ্রেফতার। বাড়ির পরিচারিকা থেকে একাধিক মহিলাকে ধর্ষণ ও যৌন হেনস্থার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে জার্মানি থেকে দেশে ফেরেন রাভান্না। বেঙ্গালুরুর কেম্পেগৌড়া আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামতেই সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শুধু যৌন নির্যাতন নয়, সেক্স টেপও ফাঁস হয় প্রজ্জ্বলের। তবে এখনও পর্যন্ত ২ টি নির্দিষ্ট যৌন নির্যাতনের এফআইআর দায়ের হয়েছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবগৌড়ার নাতির বিরুদ্ধে। এসবের মধ্যেই কর্নাটকের হাসান লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ এবং চলতি লোকসভা নির্বাচনে ওই কেন্দ্রেরই জনতা দল সেকুলারের প্রার্থী প্রজ্জ্বল দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান বলে গুঞ্জন ওঠে। তিনি এতদিন মিউনিখে ছিলেন বলে জানা গেছে। কর্নাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জি পরমেশ্বর এই ঘটনার পর জানান, দেশে পা দেওয়া মাত্রই প্রজ্জ্বলকে গ্রেফতার করা হবে। ঠিক এই কারণেই সূত্র মারফত খবর পেয়ে বেঙ্গালুরু বিমানবন্দরের উপর নজরদারি বাড়ানো হয়। অবশেষে বেঙ্গালুরু বিমানবন্দরে নামতেই গ্রেফতার করা হয় প্রজ্জ্বল রেভান্নাকে। তাঁর বিরুদ্ধে যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগে তৈরি হওয়া বিশেষ তদন্তকারী দল শুক্রবার থেকেই তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জেরা করবে বলে জানা গেছে। তাঁর বিরুদ্ধে হওয়া ঘৃণ্য অভিযোগ ওঠার পরেও তিনি নিজেকে রাজনৈতিক চক্রান্তের শিকার বলে দাবি করেন। ইতিমধ্যেই জনতা দল সেকুলারের এই সাংসদের থেকে দূরত্ব তৈরি করে নিয়েছে বিজেপি। তাঁর নিজের দল থেকেও তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। দেশে ফেরার জন্য আগে ২ বার মিউনিখ থেকে বেঙ্গালুরুর টিকিট কেটেও বাতিল করেন প্রজ্জ্বল। তাই গত বৃহস্পতিবারও তিনি দেশে ফিরবেন কিনা, তা নিয়ে সংশয় ছিল। ভোটের ফল প্রকাশের পর তিনি ফিরতে পারেন বলে সন্দেহ ছিল রাজনৈতিক মহলের। তবে তা হয়নি। শেষ দফা ভোটের ২ দিন আগে দেশে ফিরেই গ্রেফতার হলেন প্রজ্জ্বল।

আরও পড়ুন : মহিলা ভোটার। সবচেয়ে কম কলকাতা উত্তরে আর সবচেয়ে বেশি যাদবপুরে