Date : 2024-05-26

এসসি এসটি ওবিসিরা কংগ্রেস থেকে দূরে, ধর্মের প্রশ্নে খোঁচা মোদীর। সংবিধান তুলে কংগ্রেসকে তুলোধোনা

সাংবাদিক, সুচারু মিত্র: এসসি এসটি ওবিসিরা কংগ্রেস থেকে দূরে সরে গেছে, সে জন্য দলটা গোলমাল পাকাচ্ছে। লোকসভা নির্বাচনী পর্ব যত এগোচ্ছে ভোটের উত্তাপ বাড়ছে,ততই কংগ্রেসকে তুলোধোনা করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।এবারে এসসি এসটি ওবিসি নিয়ে কংগ্রেসকে তুলোধোনা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।একের পর এক সভা থেকে মোদী অভিযোগ করছেন কংগ্রেস ধর্মভিত্তিক সংরক্ষণ প্রবর্তনের জন্য সংবিধান পরিবর্তন করার পরিকল্পনা করছে। নির্বাচনের আগে দেশের রাজনৈতিক বাতাবরণ গরম করছে ইচ্ছে করে কংগ্রেস। তিনি বেঁচে থাকতে সংবিধান পরিবর্তনের এই কুপ্রচেষ্টা হতে দেবেন না বলে দাবি করলেন মোদী। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন অনগ্রসর শ্রেণীর অধিকার কেড়ে না নিয়ে আমরা সাধারণ শ্রেণীর মধ্যে অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়াদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ দিয়েছি। সাধারণ দরিদ্র শ্রেণীর লোকদের ন্যায় বিচার দেওয়ার জন্য আমরা ১০ শতাংশ সংরক্ষণ দিয়েছিলাম। দেশের দরিদ্ররা এটিকে ইতিবাচক ভাবে স্বাগত জানিয়েছে বলে দাবি প্রধানমন্ত্রীর। ভারতীয় সংবিধান ধর্মের নামে সংরক্ষণ অনুমতি দেয় না বলেও কটাক্ষ মোদীর।কর্নাটকে একটি ফতোয়া জারি করে এক রাতের মধ্যে সমস্ত মুসলমানকে ওবিসি কোটা থেকে সংরক্ষণ দেওয়া হয়েছে। একেবারে ভোটের মুখে ধর্ম এবং সংবিধান নিয়ে তুর্মুষ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এমনকি ইন্ডিয়া জোট নিয়েও কটাক্ষ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর, দেশের এমন কোন মুখ আছে? যার উপর ভরসা করে ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া যায়? মোদী ছাড়া গ্যারান্টি কেউ দিতে পারবেনা বলেও সাম্প্রতিকতম সময়ে তিনটি সভা থেকে আক্রমণ ইন্ডিয়া জোটকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।এবার নির্বাচনী প্রচারে হাতিয়ার করলেন সংবিধান এবং এসসি, এসটি ওবিসি সম্প্রদায়কে।

আরো পড়ুন: তীব্র দাবদহের জন্য পঠনপাঠন সাময়িক বন্ধ থাকছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে