Date : 2024-05-26

হঠাৎ অবসর ভারত অধিনায়কের। এক্স হ্যান্ডেলে পোষ্ট আবেগপূর্ণ বার্তা

জাতীয় ফুটবল দল থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন সুনীল ছেত্রী। বৃহস্পতিবার সকালে হঠাৎ করে‌ই নিজের এক্স হ্যান্ডেলে এক আবেগঘন পোষ্ট করে নিজের অবসরের সিদ্ধান্তের কথা জানান ভারতীয় জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল।

সঞ্জু সুর, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ- ২০০২ সালে প্রথম পা রেখেছিলেন কলকাতা ময়দানে। তারপর এই দীর্ঘ ২২ বছরে সারা দেশ ও বিশ্বের বিভিন্ন মাঠে দাঁপিয়ে খেলার পর সেই কলকাতার মাঠেই শেষবারের মতো ফুটবলে পা দিতে চলেছেন সুনীল ছেত্রী। আগামী ৬ জুন কলকাতার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে বিশ্বকাপ’২০২৬ এর যোগ্যতা অর্জনকারী ম্যাচে কুয়েত এর বিরুদ্ধে শেষ বার জাতীয় দলের জার্সি গায় মাঠে নামবেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ফুটবলে এই মুহূর্তে যারা খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁদের মধ্যে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছেন সুনীল ছেত্রী। বিশ্বখ্যাত ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ও লিয়োনেল মেসির পর। জাতীয় দলের হয়ে ১৫০ ম্যাচে ৯৪ গোলের অধিকারী সুনীল ছেত্রী ভারতের অধিনায়ক হন ২০১২ সালে এএফসি চ্যালেঞ্জার কাপের সময়।‌ সেই থেকে গত ১২ বছরে দেশের হয়ে একের পর এক রেকর্ড করে গেছেন ৫ ফুট ১ ইঞ্চির এই ফুটবলার। ২০০৪ সালে প্রথম অনূর্ধ্ব কুড়ি জাতীয় দলে সুযোগ পান। ৩ ম্যাচে ২ গোল করেন তিনি। এরপর অনূর্ধ্ব ২৩ দলের হয়ে ৬ ম্যাচে ২ গোল আছে সুনীলের। সুনীল ছেত্রী ই প্রথম ভারতীয় ফুটবলার যিনি আমেরিকার মেজর সকাল লিগের টিমে (কানসাস সিটি) নাম লিখিয়েছিলেন সেই ২০১০ সালে। ক্লাব ফুটবলে ইষ্টবেঙ্গল, মোহনবাগান, জেসিটি, চার্চিল ব্রাদার্স ঘুরে ২০১৬ সাল থেকে রয়েছেন বেঙ্গালুরু এফসি-র সঙ্গে। এআইএফ‌এফ এর বিচারে সাতবার বর্ষসেরা প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার হ‌ওয়ার পাশাপাশি ২০১১ সালে অর্জুন পুরস্কার, ২০১৯ সালে পদ্মশ্রী ও ২০২১ সালে রাজীব খেল রত্ন পুরস্কার পান সুনীল।

বৃহস্পতিবার সকালে নিজের এক্স হ্যান্ডলে এক আবেগঘন ভিডিও পোষ্ট করে নিজের অবসরের সিদ্ধান্তের কথা জানান সবচেয়ে বেশি সময় ধরে ভারতীয় দলের অধিনায়ক থাকা সুনীল ছেত্রী। নিজের পোষ্টের ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, “অবশেষে সেই সিদ্ধান্ত নিতেই হলো। এই সিদ্ধান্ত নেওয়াটা নিজের কাছেই যথেষ্ট কঠিন ছিলো। গত প্রায় দুই আড়াই মাস ধরে এটা নিয়ে অনেক ভেবেছি।” ভিডিও তে সুনীল কে বলতে শোনা যায় “অবসরের সিদ্ধান্তের কথা প্রথম আমি নিজেকেই বলেছি।‌ বলেছি পরের ম্যাচ ই আমার আন্তর্জাতিক জীবনের শেষ ম্যাচ হতে চলেছে। আর এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই আমার হঠাৎ করে এক এক করে মনে পড়তে শুরু করেছে এই এতগুলো বছরে আমি কি কি করেছি।‌ কখন সফল হয়েছি, কখনও বা ব্যর্থ হয়েছি। আমার মনে হয়েছে এটাই সঠিক সময় যখন আমার দেশের পরবর্তী ৯ নম্বর জার্সিধারী কে খুঁজে নিতে হবে। অনেক কথাই মনে পড়ে যাচ্ছে। একসঙ্গে প্র্যাকটিস করা, একসঙ্গে খাওয়া, বসা, আর একসঙ্গে মাঠে দাঁড়িয়ে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া। উফ্।” গলা ধরে আসে সুনীলের। প্রায় ৯ মিনিট ৫১ সেকেন্ডের ভিডিও তে বাইচুং ভুটিয়া থেকে এন পি প্রদীপ সহ একাধিক সতীর্থ ফুটবলারের নাম করেন তিনি। যে সব কোচেদের অধীনে খেলেছেন, ধন্যবাদ জানান তাঁদের ও। ১৯ বছরের আন্তর্জাতিক ফুটবল কেরিয়ার শেষের ঘোষণার সময় দৃশ্যত‌ই বিধ্বস্ত দেখায় সুনীল ছেত্রীকে। তবে তিনি ক্লাব ফুটবল চালিয়ে যাবেন কি না সেটা এখনও স্পষ্ট নয়।

আরও পড়ুন : চড়ছে আলুর দাম। মাথায় হাত ক্রেতা থেকে বিক্রেতার