Date : 2024-06-23

সোনাচুঁড়ায় ছাপ্পা। দেবাংশুর অভিযোগ ওড়ালো কমিশন

নন্দীগ্রামের সোনাচুঁড়ার একটি বুথে বিজেপি ব্যাপক ছাপ্পা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তমলুকের তৃণমূল প্রার্থী দেবাংশু ভট্টাচার্য। অভিযোগ পাওয়ার পর খতিয়ে দেখে কমিশন জানায় ছাপ্পার অভিযোগ ঠিক নয়।

সঞ্জু সুর, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ- যত কান্ড নন্দীগ্রামে। গত দুই দিনের মতো শনিবার ভোটের সকালেও একের পর এক অভিযোগ কমিশনের দফতরে জমা পড়ছে ওই তমলুক লোকসভার অন্তর্গত ওই নন্দীগ্রামকে কেন্দ্র করে। সোনাচুঁড়ার ২৭৪ ও ২৭৫ নং বুথ এলাকায় একটি গ্রামের কোনো ভোটার বুথে পৌঁছাতে পারছেন না। তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ বুথে যাওয়ার জন্য যে একমাত্র বাঁশের সাঁকো ছিলো সেটি ভেঙ্গে দিয়েছে বিজেপির দুষ্কৃতীরা। এই অভিযোগের বিষয়ে কমিশনকে জানানো হলে কমিশনের পক্ষ থেকে জেলা থেকে খবর নেওয়ার পর মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক জানান যে এটি সকালের দিকের ঘটনা। খবর পাওয়ার পর পুলিশ ও প্রশাসনের আধিকারিকরা সেই এলাকায় যান। সেখানে বিকল্প একটি রাস্তা আছে। আপাতত সেই রাস্তা দিয়েই ভোটাররা বুথে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের আরটিও।

এদিন ওই সোনাচুঁড়াতেই একটি বুথে ছাপ্পা হচ্ছে বলে নিজের এক্স হ্যান্ডেলে পোষ্ট করেন তমলুকের তৃণমূল প্রার্থী দেবাংশু ভট্টাচার্য।

কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাব নিজে তৎক্ষণাৎ ওই নির্দিষ্ট বুথের ছবি ওয়েব কাস্টিং এর মাধ্যমে দেখেন এবং সেই সঙ্গে তিনি জেলা থেকে রিপোর্ট ও তলব করেন। পরে দেবাংশু-র অভিযোগ খন্ডন করে তিনি জানান, “ওখানে (২৭৯ নং বুথ, গঙ্গা বাসুলি প্রাথমিক বিদ্যালয়) কোনো বুথ জ্যাম বা ছাপ্পার খবর নেই। ওই বুথের ভিভিপ্যাট টি খারাপ হয়ে গিয়েছিলো। তাই সেটা পরিবর্তন করা হয়েছে।” কমিশনের বক্তব্য সম্ভবত ভিভিপ্যাট পরিবর্তন করার ছবি‌ই তৃণমূল প্রার্থী পেয়েছেন এবং অভিযোগ করেছেন। এই অভিযোগের সারবত্তা নেই।

আরও পড়ুন : ষষ্ঠ দফার নির্বাচন: এক নজরে ধনী-গরিব প্রার্থীরা