Date : 2019-08-18

সারা ভারতে মোট গাছের সংখ্যা মাত্র ২৪.৪৯ শতাংশ, এখনও কি সচেতন হবে না মানুষ?….

ওয়েব ডেস্ক: দিন ফুরোচ্ছে। কিছুটা হলেও ফুরিয়ে যাচ্ছি আমরাও। কমছে গাছ। সঙ্গে কমছে এই পৃথিবীর আয়ুও। তবে চেষ্টা চলছে বাঁচার। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে লাগানো হচ্ছে গাছ।

দেরীতে হলেও টনক নড়ছে মানুষের। তবে প্রচেষ্টার পরিমাণ বাড়াতে হবে। সঙ্গে বাড়াতে হবে গাছ লাগানোর সংখ্যাও প্রচুর পরিমাণে। ইন্ডিয়া স্টেট অফ ফরেস্ট (ISFR) রিপোর্টের সমীক্ষা অনুযায়ী, সারা ভারতবর্ষের মাত্র ২৪.৪৯ শতাংশ অংশ এখন সবুজে ঢাকা।

অর্থাৎ ১০০ ভাগের মধ্যে ৬.৭৯ ভাগ মাত্র সবুজ এখনও পর্যন্ত বেঁচে আছে ভারতে। সমীক্ষা আরও বলছে, যে এই সমস্ত রাজ্যগুলির মধ্যে সবথেকে কম গাছের সংখ্যার তালিকায় প্রথম নাম হরিয়ানার। এরপরেই আছে পাঞ্জাবের নাম, যেখানে মাত্র ৬.৮৭ শতাংশ, রাজস্থানে ৭.২৬ শতাংশ।

এই গ্রামে বাড়ি নেই, গাছে পাখির বাসা বানিয়ে থাকে গোটা গ্রাম‌!…

একমাত্র মধ্যপ্রদেশের ২৭.৭৩ শতাংশ জঙ্গলে ঢাকা। সারা ভারতের মাত্র ৬টি রাজ্য এই বিষয়টিকে একটু সঙ্কটজনক পরিস্থিতি হিসেবে গণ্য করেছে। তাদের মধ্যে উঠে এসেছে ৪টি রাজ্যের নাম, মণিপুর, অরুণাচলপ্রদেশ, মিজোরাম ও মেঘালয়ের। এছাড়াও গোয়া ও কেরালা দুটি রাজ্য যেখানে ৫০ শতাংশতেই বিরাজমান সবুজের ছোঁয়া।

মাত্র ১০ টাকার বিনিময়ে গরীবদের দুবেলা অন্ন সংস্থানের ব্যাবস্থা করে এই প্রতিষ্ঠান…

তবে শুধু এই কয়েকটি জায়গাতেই কেবল বৃক্ষময় হলেই হবে না, এটি প্রবণতাকে বায়ুর গতিতে ছড়িয়ে দিতে হবে সারা ভারতে। তবে যদি সংখ্যাটি ২৪.৮৯ শতাংশের থেকে বাড়ে। তা না হলে খুব খারাপ সময়ের সম্মুখিন হতে চলেছে এই দেশ।