Date : 2019-09-19

মদ্যপান করে গড়ি চালানো নাকি যান্ত্রিক ত্রুটি? জাগুয়ার দুর্ঘটনায় তদন্তে পুলিশ….

কলকাতা: লাউডন স্ট্রীটে জাগুয়ার দুর্ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে আরসালান পারভেজকে। নামী রেস্তোরাঁর মালিকের ছেলে আরসালান পারভেজের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৭৯ (বেপরোয়া গাড়ি চালানো), ৪২৭ (সম্পত্তির ক্ষতি) এবং ৩০৪(২) (অনিচ্ছাকৃত খুন) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত গাড়ি থেকে অভিযুক্ত আরসানাল পারভেজের আন্তর্জাতিক লাইসেন্স সহ বেশ কিছু নথিপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তবে দুর্ঘটনার সময় তিনি মদ্যপ ছিলেন কিনা তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোন প্রমাণ মেলেনি।

যেহেতু ঘটনার প্রায় ১২ ঘন্টা পর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে, তাই প্রমাণ কতটা পাওয়া যাবে তাই নিয়ে ধন্দ সৃষ্টি হয়েছে। গাড়ির মধ্যে থাকা ইভেন্ট ডেটা সংগ্রহ করেছে ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞরা। এমনকি ঘটনার সময় গাড়ির গতিবেগ কত ছিল তা নিয়েও তদন্ত করা হবে।

আরও পড়ুন : বৃষ্টির রাতের কলকাতায় বেপরোয়া জাগুয়ার পিষে দিল ২ ব্যক্তিকে

এছাড়াও রাস্তার সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে জানা গেছে সেই রাতে জাগুয়ারটি একাধিক সিগনাল ভেঙেছিল সেই রাতে। রাতের শহরে গাড়ির বেপরোয়া গতি এখন কলকাতা শহরের নতুন ঘটনা নয়।

আরও পড়ুন : সল্টলেকে পুলিশ কর্মীকে মেরে নাক ফাটাল কন্ডাক্টর

শুক্রবার গভীর রাতেও ওই জাগুয়ার গাড়িটির গতিবেগ ঘন্টায় প্রায় ৯০ থেকে ১০০ কিমি ছিল। ঘটনায় অভিযুক্ত আরসেনাল পারভেজের আইনজীবীর বক্তব্য, বৃষ্টির রাতে গাড়ির চাকা স্কিট করার কারণেও গতিবেগ বেশি দেখাতে পারে। তাছাড়া গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারানোর কারণে মার্সেটিজ বেঞ্জে ধাক্কা মেরে সামনেই থাকা একটি পুলিশ কিয়স্কে ধাক্কা দেয়। ঘটনার জেরে পুলিশ কিয়স্কটি ভেঙে পড়ে। সেখানেই দাঁড়িয়ে থাকা তিনজন বাংলাদেশী নাগরিকের মৃত্যু হয়। ধৃতকে ব্যঙ্কশাল কোর্টে তোলা হয়েছে।