Date : 2021-10-26

বাতাস ভরেছে কার্বন স্তরে, কালো তুষারে ঢাকলো শহর….

ওয়েব ডেস্ক: বেশ কিছু সপ্তাহ ধরেই অগ্নিকাণ্ডে গ্রাসে পৃথিবীর ফুসফুস। বায়ুমণ্ডলের ২০ শতাংশ অক্সিজেনের উৎস এখন বিপন্ন। ভষ্মে রূপান্তরীত হয়েছে বিস্তীর্ণ বনভূমি। দেশী-বিদেশি সমস্ত সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম দখল করেছে এই ঘটনা। দূষণমাত্রা ভয়াবহ আকার ধারণ করার সম্ভবনার কথা জানিয়ে সতর্ক করেছেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা। চলতি সপ্তাহে রাশিয়ার একাধিক শহরে কালো তুষারপাতের ঘটনা সেই পরিস্থিতিকে আরও একবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলো।

আরও পড়ুন : ‘গজনি’ পার্ট ২- প্রতি ২ ঘন্টা অন্তর স্মৃতি পুনঃস্থাপন হয় এই মেয়ের

কালো তুষারপাতের ঘটনায় রাশিয়ার কিসেলাইভস্ক শহর ছেড়ে চলে যাচ্ছেন বহু মানুষ। শীত প্রধান শহরে তুষারপাত কোন নতুন ঘটনা নয়। কিন্তু রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে কালো তুষারপাতের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন বাসিন্দারা। বিশেষকরে খনি সংলগ্ন অঞ্চলেগুলিতেই এই সমস্যা প্রবল আকার ধারণ করেছে। রাশিয়ার ৯০ থেকে ৮০ শতাংশ মানুষ খনি সংলগ্ন অঞ্চলে বসবাস করেন। খনির কারণে এই সব অঞ্চলে দূষণমাত্রা অনেক বেশি।

আরও পড়ুন: জম্মু-কাশ্মীর ভারতেরই রাজ্য! ঢোক গিলে স্বীকার করল পাকিস্তান

মানুষের সৃষ্ট দূষণের কারণেই ক্রমশ অস্বস্তিকর পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে রাশিয়ার শহরগুলিতে। শহরে কয়লাখনির ছাইয়ে শ্বাসকষ্টে ভুগছেন অধিকাংশ বাসিন্দারা। তবে পরিবেশ বিজ্ঞানীদের মত এই সমস্যায় যে শুধু রাশিয়াই ভুগবে তা নয়, দূষণের মাত্রা বেড়ে চলায় আগামী দিনে কালো বৃষ্টি ও কালো তুষারপাতের ঘটনা বাড়তে পারে। বাতাসে কার্বনের পরিমাণ যত বাড়বে কালো তুষারপাতের সম্ভবনাও বাড়বে। এর কঠিন প্রভাব স্বরূপ নষ্ট হতে পারে মানুষের শ্বাসযন্ত্র।