Date : 2019-10-17

বউবাজারকাণ্ডের জের, মেট্রোর সুরঙ্গের কাজে স্থগিতাদেশ কলকাতা হাইকোর্টের….

কলকাতা: ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর টানেল খোঁড়ার কাজ চলাকালীন ধসের জেরে ক্ষতিগ্রস্থ হয় বউবাজার অঞ্চলের একাধিক বাড়ি। এই নিয়ে কলকাতা পুরসভা হাইকোর্টে একটি মামলা দায়ের করে। এর ভিত্তিতে KMRCL-কে আগামী ৭ তারিখ পর্যন্ত টানেল খোঁড়ার কাজ স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। রাজ্য সরকারের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের এই সম্পর্কে কি রূপরেখা তারি করছে সেই হলফনামা আগামী ২৭ নভেম্বরের মধ্যে আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের।

আরও পড়ুন; মেট্রো বিপর্যয় ক্ষতিগ্রস্থদের ৫ লক্ষ টাকার চেক হাতে তুলে দেওয়ার কাজ শুরু

প্রসঙ্গত, সপ্তাহখানেক আগেই মেট্রোর কাজ চলাকালীন তাসের ঘরের মতো ধসে পড়ে বউবাজারের দুর্গা পিতুরি লেন ও স্যাঁকরাপাড়া লেনের একাধিক বাড়ি। পরিস্থিত এতই বিপজ্জনক হয়ে ওঠে যে আবাসন ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে হয় রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী তাপস রায়কে। ওই অঞ্চলের অসংখ্য বাসিন্দাদের এখন অস্থায়ী হোটেলের ঘর। বিশেষজ্ঞ টিম পরীক্ষা করে জানিয়েছে ওই অঞ্চলে ভূগর্ভস্থ পলির পরিমান বেশি, জলস্তর বা ওয়াটার পকেটের মধ্যে টানেল বোরিং মেশিন কাজ করার ফলে এই ধরনের বিপর্যয় ঘটেছে।

আরও পড়ুন : চাপা পড়ে মরতে হলেও রাজি বাসিন্দারা, বৈধ কাগজ না মেলায় বউবাজারে অবরোধ

এরপরেই কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হলে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টি ডি রাধাকৃষ্ণণের ডিভিশন বেঞ্চের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, কোর্টের নির্দেশ ব্যাতিত ওই অঞ্চলে কোন কাজ করতে পারবে না মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। বউবাজার বিপর্যয়ের কারণে KMRCL পক্ষ থেকে ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ বাবদ চেক দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ি পুনঃনির্মানের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কাজ করে চলেছে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর।