Date : 2021-10-17

চিনে সেনাবাহিনীর চাকরি স্বেচ্ছায় ছাড়লে যে শাস্তি অপেক্ষা করে..

ওয়েব ডেস্ক : দেশের সেনাবাহিনীর চাকরিতে যোগ দেওয়া দেশের যুবকের কাছে অবশ্যই এক সম্মানের বিষয়। তবে সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন নিয়ম রয়েছে। চিনেও রয়েছে বেশ কিছু নিয়ম। তবে সেনাবাহিনীতে যোগ দিলে বেশ কিছু কঠোর নিয়মের বশবর্তী হতে হয় সেই যুবককে। তবে কোনকারণে মাঝপথে আপনি যদি চিনের সেনাবাহিনী ছাড়ার কথা মনে করেন তাহলে দুঃখ রয়েছে আপনার কপালে। মানে শাস্তি।

আরও পড়ুন : আমরা কারোর দয়ায় এই দেশের নাগরিক নই”: মুখ্যমন্ত্রী

তবে সে শাস্তির কি ধরন হতে পারে তা শুনলে চোখ কপালে উঠবে আপনার। কি সেই শাস্তি? সম্প্রতি চিনের পিপল্স লিবারেশন আর্মির ওয়েবসাইটে এই সংক্রান্ত একটি তথ্য বের হয় যেখানে চিনের নিয়ম অনুযায়ী সেনা থেকে স্বেচ্ছাবসর নেওয়ার অভিযোগে তাকে ধরানো হয়েছে শাস্তির তালিকা। ঝ্যাং মৌকাং নামের এক ব্যক্তিকে মোট ৮ টি শাস্তির কথা বলা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে দুবছরের জন্য বিদেশে যাওয়ার নিষেধাজ্ঞা, চিনের মধ্যে প্লেনে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা, ট্রেন ও বাসে দূরে যাওয়ার ক্ষেত্রেও রয়েছে নিষেধাজ্ঞা, সম্পত্তি কেনার ওপর নিষেধাজ্ঞা, ঋণ পাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা, ব্যাবসা খোলার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা,কোন স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার ওপরে ও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে চাকরি ছাড়লে।

আরও পড়ুন :কেন নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদ? হাইকোর্টে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

শুধু তাই নয় তার এই  সরকারী চাকরির ক্ষেত্রেও সারাজীবনের জন্য বন্ধ দরজা। তাছাড়া চাকরি ছাড়ার জন্য তাকে দিতে হবে ৪০০০ ডলার ফাইন। সেনাবাহিনীতে যোগদান কালীন যে খরচ তার ওপর করা হয়েছিল তাও নেওয়া হবে তার কাছ থেকে। শুধু তাই নয় ওই সেনাকে সমাজের চোখে কালিমালিপ্ত করতে তার ওপর ঘটা এই বিষয়গুলিকে সমাজে প্রত্যেকটি জায়গায় ছড়িয়ে দেওয়া হয় খবরের মাধ্যমে। যাতে তা একটি উদাহারণ হয়ে দাড়ায় সমাজের মধ্যে। এবং এই সবই নাকি রয়েছে পিপলস লিবারেশন আর্মির নিয়মে।