Date : 2021-10-19

“সোজা সাপটা চরিত্রে অভিনয় আর না ”,Exclusive প্রসেনজিৎ…

ওয়েব ডেস্ক:- ১ বছর আগের কথা, আর্যনীল আর সুশোভনের চরিত্র অনেকটা জ্যান্ত হয়ে উঠেছিল মানুষের কাছে। পরিচালক অতনু ঘোষ আর প্রসেনজিৎ জুটি সঙ্গে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের অনবদ্য অভিনয় জাতীয় পুরষ্কার এনে দিয়েছিল “ময়ূরাক্ষী” ছবিকে। এবছরও প্রায় একই সময় দর্শকদের সামনে আসতে চলেছে অতনু ঘোষ পরিচালিত “রবিবার”। একদিন প্রতিদিন, ১৯ এপ্রিল-র পর অনেকটা সময় কেটে গেছে, আবার সেই একটা দিনের গল্পের মধ্যে দিয়ে সম্পর্কের রসায়ন বুনতে জুটি বেঁধেছেন প্রসেনজিৎ ও জয়া আহসান।

ছবিতে তাঁর চরিত্র সম্পর্কে বুম্বাদা প্রথম থেকেই খুব ইতিবাচক মতামত প্রকাশ করেছেন। বুম্বাদার কাথায়, বাংলা ছবিতে এমন চরিত্র প্রায় অপ্রতুল। ছবিতে তাঁর নাম অসীমাভ, বিপরীতে সায়নীর চরিত্রে রয়েছেন জয়া আহসান। ট্রেলার দেখে ছবিটি নিছক প্রেমের গল্প বললে যেমন ভুল হবে তেমন সাসপেন্স থ্রালার বলাও ঠিক নয়। ট্রেলারের শুরুতে একটি প্ল্যাটফর্মে জয়া আহসান বসে আছেন, একটি থ্রু ট্রেন চলে যাচ্ছে, প্রথম সংলাপের মধ্যেই যেন রয়েছে ছবির সারসংক্ষেপ। “আজকে কিন্তু মোটামুটি মেঘ, রোদ, বৃষ্টি তিনজনেরই দেখা পাওয়া যাবে।

এবার কাকে আপনি কিভাবে সামলাবেন সেই সিদ্ধান্ত আপনাকেই নিতে হবে।” বর্তমান কর্মব্যস্ততার জীবনে যদিও আলাদা করে রবিবারটাকেই শুধুমাত্র ছুটির দিন বলা যায় না। কিন্তু রবিবার দিনটার মধ্যেই কোথাও অবসর লুকিয়ে রয়েছে।

আলিয়া না কিয়ারা! নাম বিভ্রাটের ফাঁসে অভিনেত্রী

সারা সপ্তাহের ক্লান্তি ভুলে বাঁধন ছাড়ার সময় কাটানো। বুম্বাদা অবশ্য ছবির গল্প থেকে বেরিয়ে এসে নিজের ব্যক্তিগত রবিবারের কাহিনী শোনালেন, রবিবার শব্দটার মধ্যেই একটু বাঁধন ছাড়া ভাব রয়েছে। হ্যাঁ, ঠিকভই ধরেছেন, টলি সুপারস্টারের রবিবারে এলার্ম বাজে একটু দেরিতেই। গ্রিন টি বা ব্লাক টি ছেড়ে পাড়ার দোকানের ভাঁড়ে দুধ চা এর স্বাদই বুম্বাদার পছন্দ।

আগামী দিনে বুম্বাদাকে তাঁর অনুরাগী, দর্শকরা কিভাবে কোন কোন চরিত্রে দেখতে পাবেন তা নিয়ে প্রশ্নের উত্তরটাও খুব নির্দিষ্ট করে জানালেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, ১৫ বছর আগে একসঙ্গে অনেক কমার্সিয়াল ছবিতে অভিনয় করেছেন। তবে ক্রমশ দর্শকের রুচি বদলেছে, তাই তাঁদের কথা ভেবেই বিশেষ বা সিলেক্টিভ কিছু চরিত্রেই দেখা যাবে তাঁকে।

একসঙ্গে “ছুটি” কাটালেন শাশ্বত-ঋতুপর্ণা, মুখোমুখি আর প্লাস নিউজের

প্রশ্ন করলাম বুম্বাদাকে, টলিউডের পরিচালকদের মধ্যেও কি তিনি বিশেষ পছন্দকে গুরুত্ব দেন?

সরাসরি না বললেও , বুম্বাদার কথা কিন্তু একটাই, স্বপন সাহা বা হরনাথ চক্রবর্তীর কমার্শিয়াল ছবিতে অভিনয় করার সময় তাঁরা চরিত্রগুলি নির্মান করতেন বুম্বাদার কথা ভেবেই। কিন্তু এখন টলিউডের কিছু পরিচালক সম্পূর্ণ নিজেস্ব ভাষায় ছবির বুনন করছেন। সেই এক্সপেরিমেন্টাল চরিত্রে আরও অভিনবত্ব পেতে চান বুম্বাদা কিন্তু এমনটাই জানালেন। একই ভাবে সহ চরিত্র জয়া আহসানের প্রসংশা শোনা গেল বুম্বাদার কথায়।