Date : 2021-10-19

প্রত্যাহার করা হোক CAA, সোনিয়ার নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতির কাছে দরবার বিরোধীদের….

ওয়েব ডেস্ক:- নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা দেশ। বিশেষ করে উত্তর-পূর্ব ভারতের অসম ও ত্রিপুরায় দফায় দফায় ব্যাপক বিক্ষোভের জেরে বিপর্যস্ত হয়েছে জনজীবন। ক্ষোভের আঁচ এসে পড়েছে বাংলার বিভিন্ন জেলায়। এই পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হলেন বিরোধী দলের প্রতিনিধিরা। কংগ্রেসের কার্যকারী সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতি ভবনে গেলেন আরজেডি, ডিএমকে, বামফ্রন্ট ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিনিধিরা। সিএএ নিয়ে বিরোধীদের বক্তব্য এই আইন সংবিধান বিরোধী।

শহরে পালিত হল বাংলাদেশ বিজয় দিবস

এই আইন যাতে দেশে কার্যকারী না হয় এবং দ্রুত এই আইন বাতিল করা হয় তার জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে দরবার করতে উপস্থিত হয় বিরোধী দলের প্রতিনিধিরা। এদিন কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান, “দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয় যেভাবে পুলিশি অভিযান হয়েছে তাতে রীতিমতো চিন্তিত। পড়ুয়াদের ব্যাপক মারধর করা হয়েছে। মানুষের কণ্ঠরোধ করছেন মোদী।”

কাল থেকেই শহরে আসছে শীত

উল্লেখ্য, এদিন বিকেলে কংগ্রেসের কপিল সিব্বল, একে অ্যান্টনি, আনন্দ শর্মা, তৃণমূলের ডেরেক ও’ব্রায়েন, সিপিএমের সীতারাম ইয়েচুরি, সিপিআইয়ের ডি রাজা, আরজেডির মনোজকুমার ঝা সোনিয়া গান্ধীরা সঙ্গে রাষ্ট্রপতি ভবনে যান। প্রসঙ্গত, এদিন এনআরসি ও সিএএ-র বিরোধিতায় ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে দিল্লি। জেএনউ, বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় সহ একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাত্র বিক্ষোভের জেরে উত্তাল হয়ে ওঠে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে দিল্লি বেধরক লাঠিচার্জ করে পুলিশ। রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় দিল্লি। পোড়ানো হয়েছে বাস। পরিস্থিতি নিয়ে এদিন উদ্বেগ প্রকাশ করেন কংগ্রেসের কার্যকারী সভাপতি সোনিয়া গান্ধী।