Date : 2020-09-23

কম বয়সের অজুহাত! ফাঁসি আদেশে সুপ্রিম কোর্টে প্রাণ ভিক্ষা চাইল নির্ভয়ার ধর্ষক…

ওয়েব ডেস্ক: ঘটনার সময় মাত্র ১৯ বছর বয়স ছিল। বিষয়টিকে একবার অন্তত বিবেচনা করা উচিত আদালতের, ফাঁসির কয়েক দিন আগে নতুন সুর শোনা গেল নির্ভয়ার এক ধর্ষকের কন্ঠে। ২২ জানুয়ারি ফাঁসির আগে এই অজুহাতে ফের সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন দায়ের করল। ২২ জানুয়ারি ইতিমধ্যেই ওই ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত ৪ জন মুকেশ (‌৩২)‌, পবন গুপ্তা (‌২৫)‌, বিনয় শর্মা (‌২৬)‌, অক্ষয় কুমার সিং (‌৩১)‌–এর ফাঁসির পরোয়ানা জারি করেছে। ফাঁসির আদেশ দিয়েছে দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট।

জন্মদিনে ‘ফো’কে শুভেচ্ছা জানিয়ে রোমান্টিক পোস্ট শিবানীর

মৃত্যুদণ্ডের পরোয়ানায় স্থগিতাদেশ চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন দায়ের করলেন ধর্ষক বিনয় শর্মার আইনজীবী এ পি সিং। কোনও দোষীর আদালতের কাছে ক্ষমা চাওয়ার একমাত্র রাস্তা কিউরেটিভ পিটিশন। বিনয় শর্মার আইনজীবী জানিয়েছেন, ধর্ষণের সময় তাঁর মক্কেলের বয়স ছিল ১৯ বছর। ফাঁসি দেওয়ার আগে একবার অন্তত সেই বয়স এবং তার অর্থনৈতিক অবস্থা বিচার করা উচিত। ১৭টি খুন এবং ধর্ষণের মামলায় সুপ্রিম কোর্ট মৃত্যুদণ্ড লাঘব করে যাবজ্জীবন দিয়েছে। সেই দোষীদের মধ্যে নাবালকও রয়েছে। বিনয় শর্মার ক্ষেত্রেও আর একবার ভাবনাচিন্তা উচিত সুপ্রিম কোর্টের। উল্লেখ্য, এই ঘটনায় পঞ্চম দোষী রাম সিং বিচার হওয়ার আগেই আত্মহত্যা করেছে। ষষ্ঠ দোষী ঘটনার সময় নাবালক থাকায় তাকে এই মামলা থেকে অব্যহতি দেওয়া হয়। দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টের রায় সুপ্রিম কোর্টে বিরাট কিছু পরিবর্তন হওয়ার নয় বলেই মনে বিশেষজ্ঞরা।