Date : 2022-11-29

কাতার বিশ্বকাপে এবার মহিলা রেফারি

কাতার বিশ্বকাপে বাঁশি হাতে তুলে নিতে চলেছেন জাপানের মহিলা রেফারি ইয়োশিমি ইয়ামাশিতা। বিশ্বকাপ পরিচালনা করতে চলা তিন মহিলা রেফারির মধ্যে অন্যতম জাপানের ইয়ামাশিতা। জাপানি কন্যা বলছেন, ফিফার এই সিদ্ধান্ত নারী পুরুষ বৈষম্য দুর করতে সাহায্য করবে। ফ্রান্সের স্টিফানি ফ্র্যাপার্ট এবং রাওয়ান্ডার সালিমা মুকানসাঙ্গাও বিশ্বকাপে রেফারির দায়িত্ব পালন করবেন। এখনও পর্যন্ত কোনও মহিলা রেফারি বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলাননি। সেই সুযোগই পেয়ে কাজে লাগাতে মরিয়া ইয়ামাশিতা। এর আগে টোকিও অলিম্পিক্সেও ম্যাচ পরিচালনা করেছিলেন জাপানের ইয়ামাশিতা। অনেকদিন আগেই ফুটবল কিংবদন্তী পেলে বলেছিলেন ফুটবল একটা সুন্দর খেলা। সেই খেলা আরও সুন্দর হয়ে ওঠে মহিলা-পুরুষ নির্বিশেষে সকলে যখন মিলে মিশে খেলে। 21 নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে এবারের ফুটবল বিশ্বকাপ। সেই বিশ্বকাপেই অংশ নিচ্ছেন তিনি। ইয়াশিমাতা বলছেন,ফুটবল এমনিতেই খুব সুন্দর খেলা। সেই খেলা আরও সুন্দর ও উজ্জ্বল হয়ে উঠুক।

ফুটবলের বৃহত্তর মঞ্চে আজ পর্যন্ত কোনও মহিলাই রেফারির দায়িত্ব পালন করেননি। এবারই ইতিহাস গড়তে চলেছেন জাপানের মেয়ে ইয়াশিমাতা। তাই স্রেফ নিজেই ইতিহাসের পাতায় নাম লেখানো নয়, বরং ফুট঵ল ইতিহাসের পাতায় দেশের নামও স্বর্ণাক্ষরে লিখে রাখতে চান তিনি। ইয়াশিমাতা বলছেন, একজন রেফারি হিসেবে তার প্রধান কাজ ফুটবলকে আরও বেশি গ্রহনযোগ্য করে তোলা সকলের কাছে। পাশাপাশি খেলার জৌলুশও বাড়ানো। যদি প্রয়োজন পড়ে তাহলে ম্যাচের রাশ নিজের হাতে রাখার জন্য কার্ড ব্যবহার করব। ফুটবলারদের সঙ্গে কথা বলব,ঠান্ডা মাথায় নিজের সেরাটা দিয়ে ম্যাচ পরিচালনা করব ফুটবলের উন্নতির জন্য এবং জৌলুশ বাড়ানোর জন্য যা যা করার দরকার, সবই করব বলছেন ইয়াশিমা। তিনি ছাড়াও আরও তিন মহিলাকে সহকারি রেফারি হিসেবে প্যানেলে রেখেছে ফিফা। তারা হলেন নিউজা ব্যাক, কারেন ডিয়াজ এবং ক্যাথরিন নেসবিট।