Date : 2022-12-03

মেলবোর্নে টি২০ বিশ্বকাপে বিরাট ঝড়ে উড়ে গেল পাকিস্তান

মেলবোর্নে দুরন্ত জয় ভারতের। বিরাটের অনবদ্য ইনিংসে সৌজন্যে মেলবোর্নে পাকিস্তানকে 4 উইকেটে হারাল ভারত। একটা সময় মনে হয়েছিল ম্যাচ হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু হিমশিতল মানসিকতার প্রমান দিয়ে কাজের কাজটি করে গেলেন প্রাক্তন ভারতের অধিনায়ক। একদিকে যেমন সম্মানের ম্যাচে জেতালেন দলকে, তেমনই হাঁসি ফোটালেন রোহিত শর্মার গালেও। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৫৯ রান করে পাকিস্তান। শেষদিকে বাড়তি রান দিয়ে ফেলেন ভারতীয় বোলাররা। অক্ষর প্যাটেল এক ওভারে দিলেন ২১ রান।

পাক দল যেভাবে ভারতের স্পিনার অক্ষরকে টার্গেট করেছিলেন তেমনই পাক স্পিনারদেরও টার্গেট করলেন ভারতীয় ব্যাটাররা। শান মাসুদ, ইফতিকার আহমেদের অর্ধশতরানের পাল্টা একাই পাকিস্তান পেসারদের গুঁড়িয়ে দিলেন বিরাট কোহলি। যদিও যোগ্য সংগত দিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই লোকেশ রাহুল, রোহিত শর্মাদের উইকেট হারায় ভারত। অক্ষর প্যাটেল, সুর্যকুমার যাদবরাও এই ম্যাচের টেম্পারমেন্ট ধরে রাখতে ব্যর্থ হন। তখনই স্বমহিমায় ফেরেন বিরাট কোহলি।

৫৩ বলে অপরাজিত ৮২ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন কোহলি। ৬ টি বাউন্ডারির পাশাপাশি ৪টি ওভার বাউন্ডারিও হাঁকান বিরাট। হার্দিক পান্ডিয়া করেন ৪০ রান। মাথা ঠান্ডা রেখে ম্যাচ জয়ের দিকে টেনে নিয়ে যান বিরাট। কখনই তাড়াহুরো করে ফেললেন বিরাট। শেষ ৩ ওভারে বাকি ছিল ৪৮ রান। এক সময় যখন সকলেই ধরে নিয়েছে ম্যাচ হাতের বাইরে। তখনই রুদ্রমূর্তী ধারণ করে কোহলি। বাউন্ডারি, ডবলসের বন্যা বইয়ে ম্যাচ শেষ ওভারে নিয়ে আসেন কোহলি। সেখানেও ছিল নাটক।

হার্দিক এবং দীনেশ কার্তিকের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত। যদিও মাথা ঠান্ডা রেখেই জয়ের জন্য সিঙ্গলস নিয়ে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন ভারতের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। টি২০ বিশ্বকাপের শুরুতেই যে ভঙ্গিমায় বিরাট ফিরে এলেন তাতে চলতি বিশ ওভারের বিশ্বকাপে যে ভারতের আশাও মোটে কম নয়, তা বলাই যায়। বিরাটের সৌজন্যে ভারতের অনবদ্য জয়ের দলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।