Date : 2024-05-26

LokSabha Election24-তাপপ্রবাহের আশঙ্কায় জরুরি বৈঠকে মুখ্যসচিব।

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ ভোটের আবহে যখন রাজনৈতিক মহলে গরম ক্রমশঃ বাড়ছে, ঠিক তখনই প্রকৃতিও তার রুদ্র তেজ দেখাতে শুরু করেছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী এই সপ্তাহে দক্ষিণবঙ্গে তাপপ্রবাহের মতো অবস্থা তৈরি হতে পারে। আবহাওয়া দফতরের এই পূর্বাভাসকে মাথায় রেখে জরুরি বৈঠক সারলো নবান্ন। মু্খ্যসচিবের নেতৃত্বে হ‌ওয়া এই বৈঠক থেকে জেলাগুলোকে সতর্ক থাকার বার্তা দেওয়া হয়েছে।

দক্ষিণবঙ্গের আট জেলায় আগামি কয়েকদিনের জন্য তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। মূলত পুরুলিয়া, বাঁকুড়া , ঝাড়গ্রাম, দুই বর্ধমান, দুই মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার অনেক এলাকায় পারদ ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে পূর্বাভাস। ফলে তাপপ্রবাহের কথা মাথায় রেখে মঙ্গলবার জরুরি বৈঠক করলেন মুখ্য সচিব বি পি গোপালিকা। ভার্চুয়াল এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতরের সচিব সহ জেলাশাসক রাও। সূত্রের খবর, এদিনের বৈঠকে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে সেই সব গ্রামের দিকে যেখানে গরম পড়তেই জলের সমস্যা দেখা দিচ্ছে। যে সব এলাকায় এখনও নলবাহিত পানীয় জল পৌঁছানো সম্ভব হয় নি, সেই সব এলাকার দিকে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। প্রয়োজনে পানীয় জলের গাড়ি পাঠাতে হবে সেই এলাকায়। পানীয় জলের গাড়ি পাঠানোর সমস্যা থাকলে জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতরের পানীয় জলের পাউচ প্যাকেট পর্যাপ্ত পরিমানে মজুত রাখার কথা জানান হয়েছে।

প্রতিটি জেলার কন্ট্রোল রুম কে সতর্ক থাকতে বলার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় সমস্ত রকম ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। সরকারি কর্মি যারা নির্বাচনের কাজে ব্যস্ত রয়েছেন, তারাও যেন প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করেন। দিনের বেলায়, বিশেষ করে বেলা তিনটা পর্যন্ত রোদ এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি শিশুদের ও বয়স্কদের প্রতি বিশেষ নজর রাখার জন্য স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষকে অবহিত করার ব্যবস্থা করার কথা বলা হয়েছে। প্রসঙ্গত সোমবার বাঁকুড়ার তাপমাত্রা ছিলো ৪০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মেদিনীপুর ৪১.৬ ডিগ্রি, কলকাতা ৩৮.৭ ডিগ্রি, পানাগড়ে ৪২ ডিগ্রির আশেপাশে। আগামি চার পাঁচ দিনে এই তাপমাত্রা আরো বেশ কিছুটা বাড়তে পারে বলেই আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর। তবে দক্ষিণবঙ্গে যখন তাপপ্রবাহের সতর্কতা তখন উত্তরবঙ্গের জেলাগুলোতে অবশ্য কিছুটা বৃষ্টি পরিস্থিতি রয়েছে বলেই মত আবহাওয়া দফতরের। তবে পরিস্থিতি যাই হোক না কেন,সব রকম অবস্থার জন্য‌ই যাতে প্রশাসন প্রস্তুত থাকে সেই নির্দেশ মঙ্গলবারে বৈঠকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেই খবর।